রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯

নিকলীতে খাল খননের ফলে আবাদি হলো কয়েক হাজার হেক্টর জমি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি
  ৩১ অক্টোবর ২০২২, ১৪:১১

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার বোরোলিয়া, দিঘলা ও নিষ্ঠার খালের পানির উপর প্রায় শতাধিক বোরো ব্লকের কয়েক হাজার হেক্টর জমি নির্ভরশীল তবে দীর্ঘদিন পুনঃখনন না হওয়ায় ভোগান্তিতে ছিল প্রায় পঞ্চাশ হাজার কৃষকের পরিবার। সম্প্রতি জাইকার অর্থায়নে ক্ষুদ্রাকার পানি সম্পদ  প্রকল্পের আওতায় দিঘলা ও বোরুলিয়া এর মধ্য দিয়ে প্রায় ৯ কিলোমিটার খাল খনন করা হয়। এই খালের পানি ব্যবহার করে নিকলী, কটিয়াদি ও কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কৃষকেরা অনাবাদি জমিতে নতুন করে চাষাবাদ শুরু করেছে। খালের মধ্যদিয়ে নৌকার মাধ্যমে সহজেই ধান আনতে পারছে কৃষকেরা। খাল খননের ফলে সেচ ও ধান আনার খরচ অনেকাংশে কমে গিয়েছে। ধান উৎপাদন খরর প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে।

তবে এই খাল দুটির সাথে যুক্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার নিষ্ঠার খাল খনন না করায় প্রায় এক হাজার হেক্টর বোরো জমি অনাবাদি রয়ে গেছে। এক সময়ের খরস্রোতা এই খালটিতে পলি পরে বোরো ব্লক গুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এসব ব্লকের আওতায় প্রায় কয়েক হাজার চাষী পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছে।

নিকলী সদর ইউপি চেয়ারম্যান কারার শাহরিয়ার আহমেদ তুলিপ জানান, বোরোলিয়া ও দিগলার খাল খননের ফলে কৃষকের অনেক উপকার হয়েছে, নিষ্ঠার খালটি খনন করা হলে কৃষক আরো উপকৃত হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী মো: শামছুল হক রাকিব বলেন, নিষ্ঠার খাল খনন বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বোরোলিয়া ও দিগলার খাল খননের ফলে উপকৃত হয়েছে কৃষকেরা তবে নিষ্ঠার খাল খনন না করায় কৃষকদের দূর্ভোগ রয়েই গিয়েছে। এখন তাদের একটাই দাবী নিষ্ঠার খাল খনন চাই।

যাযাদি/ সোহেল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে