বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১

এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ১০ স্থাপনাকে দক্ষিণ সিটির ৭০ হাজার টাকা জরিমানা

যাযাদি ডেস্ক
  ২৪ জুন ২০২৪, ১৮:৫০
ছবি-যায়যায়দিন

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ১০টি বাসাবাড়ি ও নির্মাণাধীন ভবনকে জরিমানা করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) ভ্রাম্যমাণ আদালত। ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধ ও এডিস মশার প্রজননস্থল নিধনে করপোরেশন পরিচালিত ৬টি ভ্রাম্যমাণ আদালত এই জরিমানা করে।

সোমবার (২৪ জুন) ঢাদসিক'র ৬ ভ্রাম্যমাণ আদালত করপোরেশনের আওতাধীন কাঁঠালবাগান, জিগাতলা, দক্ষিণ বনশ্রী, মুরাদপুর মাদ্রাসা রোড় ও রজব আলী সরদার রোড়, মধ্যপাড়া, হিন্দুপাড়া, বড় পাড়া, উত্তর মান্ডা ট্রাকস্ট্যান্ড, ডগাইরের পূর্ব পাড়া ও বামূইল এলাকার ২৯৯টি বাসাবাড়ি ও নির্মাণাধীন ভবনে অভিযান পরিচালনা করে এবং অভিযানকালে ১০টি ভবনে মশার লার্ভা পাওয়ায় ১০ মামলায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে ৭০ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা।

এছাড়া অভিযানকালে আরও ৯টি স্থাপনায় সামান্য পরিমাণে মশার লার্ভা পাওয়ায় সেসব স্থাপনার বাসিন্দাদের সতর্ক করা হয়। এ সময় খিলগাঁওয়ের ইমামবাগ এলাকার মাহবুবুল হক ভূইয়া নামক জনৈক এক ব্যক্তি আগামীকাল বিকাল ৫টার মধ্যে তার বাড়ির পানির হাউজ পরিষ্কার করার অঙ্গীকার করেন।

এক নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাঁঠালবাগানের ফ্রি স্কুল স্ট্রিট এলাকায় ৪৫টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে প্যারাডাইস মারিয়া ও ফেয়ারদিয়া কমপ্লেক্স নামক ভবনের অভ্যন্তরে এডিস মশার প্রচুর লার্ভা পাওয়ায় যথাক্রমে ২৫ হাজার ও ২০ হাজার টাকা এবং পার্শ্ববর্তী আরেকটি ভবনকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ করে।

দুই নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ ২ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ বনশ্রী এলাকায় ২০টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করেন ১টি স্থাপনায় মশার লার্ভা পাওয়া যাওয়ায় ১টি মামলায় ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

তিন নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. দেলোয়ার হোসেন ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের জিগাতলা এলাকায় ৮৪টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করেন এবং ২টি স্থাপনায় মশার লার্ভা পাওয়ায় ২ মামলায় এক হাজার ১০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

পাঁচ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী নাহিদ ইভা ৫২ নম্বর ওয়ার্ডের মুরাদপুর মাদ্রাসা রোড ও রজব আলী সরদার রোড এলাকায় ৪৩টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করেন এবং ৪টি স্থাপনায় মশার লার্ভা পাওয়ায় ৩ মামলায় ৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

সাত অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান ৭২ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যপাড়া, হিন্দুপাড়া, উত্তর মান্ডা ট্রাকস্ট্যান্ড এলাকায় ৬০টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করেন। আদালত এ সময় ০৮টি স্থাপনায় মশার লার্ভা পায় এবং আগামীদিনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে বড় আকারে জরিমানা করা হবে বলে সতর্ক করে দেয়।

আট নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইয়াছিন ৬৬ নম্বর ওয়ার্ডে ডগাইরের পূর্ব পাড়া ও বামূইল এলাকায় ৪৭টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করেন। আদালত এ সময় ১টি স্থাপনায় মশার লার্ভা পাওয়ায় ১ মামলায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

আজকের অভিযানে সবমিলিয়ে সর্বমোট ২৯৯টি বাসাবাড়ি ও স্থাপনা পরিদর্শন করা হয়েছে। এ সময় ১০টি বাসাবাড়ি ও নির্মাণাধীন ভবনে মশার লার্ভা পাওয়ায় ১০টি মামলায় সর্বমোট ৭০ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

যাযাদি/ এম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে