বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

নজরে পড়েছেন কেয়া পায়েল

মাসুম বিল্লাহ রাকিব
  ০৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১২
ছবি-সংগৃহিত

ছোট পর্দার অভিনেত্রী কেয়া পায়েল ক্যারিয়ারের অল্প সময়েই নিজের কাজ দিয়ে দর্শকের নজরে পড়েছেন। প্রায়ই তার অভিনীত নাটক থাকে ইউটিউব ট্রেন্ডিংয়ে। এ সময়ের জনপ্রিয় সব অভিনেতাদের বিপরীতে অভিনয় করে তিনি দর্শকের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন। তার অনবদ্য অভিনয় দিয়ে তিনি দর্শককে মুগ্ধ করেছেন। মেহজাবীন, তিশা, ফারিণ, নাদিয়া, প্রভা, সাবিলা নূরদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। সাবলীল অভিনয়ের মধ্য দিয়ে নিজের জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন। পেয়েছেন দর্শকপ্রিয়তাও। নিজের বর্তমান কাজ প্রসঙ্গে কেয়া পায়েল বলেন, এবার ঈদের কাজে ব্যস্ত সময় পার করছি। প্রতিনিয়ত আউটডোরে টানা শুটিং করতে হচ্ছে। এক চরিত্র থেকে আরেক চরিত্রে শিফট করতে হচ্ছে। সত্যি কথা বলতে এতে অনেক কষ্ট হয়ে যায়। টানা কাজ করে শরীরের ওপর চাপ পড়ে যায়। কিন্তু অভিনয়টা যেহেতু ভালোবাসি, যেহেতু চরিত্র নিয়ে খেলতে ভালো লাগে তাই নতুন নতুন চরিত্রে অভিনয় করাটা উপভোগ করি। যে চরিত্রেই কাজ করি তাতে নিজের শতভাগ দিয়েই ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করি। এবার বেশি মনযোগ দিয়েছি নাটকে।

ক্যারিয়ারের অল্প সময়েই সবার আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন কেয়া পায়েল। এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, মানুষ তো শুরুতেই তেমন কিছু পায় না। কিছু পেতে হলে চেষ্টা করতে হয়। কঠোর প্ররিশ্রম করতে হয়। তারপর মানুষ কিছু পায় বা সফল হয়। আমিও শুরু থেকেই অনেক কষ্ট করেছি। দিন-রাত কাজ করেছি। অভিনয় যেহেতু শিখে আসিনি মঞ্চে কাজ করা হয়নি তাই কিছু না কিছু সমস্যার সম্মুখীন তো হতেই হয়েছে আমাকে। ভুল করেছি, তবে চেষ্টা চালিয়ে গেছি। সময় মতো সেটে যাওয়া। কারও সঙ্গে কোনো বিরোধে না যাওয়া। এগুলো মেইনটেইন করেছি।

পরিচালকদের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রেখেছি। তাদের কথা অনুযায়ী কাজ করেছি। আর সহ-শিল্পীদের কাছ থেকে অভিনয় শিখেছি। কাউকে প্রতিদ্বন্দ্বী না ভেবে নিজের মতো কাজ করে গেছি। যতটুকু স্ট্রাগল করা দরকার ততটুকুই করেছি। মাঝখানে বিভিন্ন কারণে কাজ একটু কমিয়ে দিয়েছিলাম। কিন্তু আবার ঈদের জন্য বেশ কিছু করছি।

কাজের জায়গায় কখনো ছাড় দেইনি। এই কারণে ফল পাচ্ছি।

‘ইন্দুবালা’ সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছিলেন। এরপর কি নতুন আর কোনো সিনেমার কাজের জন্য কি প্রস্তাব পাননি? হ্যাঁ, তা পেয়েছি। বেশ কিছু সিনেমাতে কাজ করার প্রস্তাব পেয়েছি। গল্প এবং চরিত্র ভালো না লাগায় রাজি হইনি। আমি বাণিজ্যিক ঘরানার সিনেমায় কাজ করতে চাই।

তবে সিনেমার গল্প আমার পছন্দের হতে হবে এবং আমার চরিত্রটিও হতে হবে মনের মতো। গল্পটি এমন হতে হবে যে, গল্পের সিনেমা দেখার জন্য পরিবারের সবাই যেন হলে গিয়ে সিনেমাটি দেখতে আগ্রহী হন। আমিও যেন আমার পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে সিনেমা হলে গিয়ে দেখতে পারি।

নিজের অভিনয় নিয়ে আপনার উপলব্ধি কী? এমন প্রশ্নে কেয়া বলেন, সব সময় ভালো কাজ করার চেষ্টা করেছি।

দর্শকের পছন্দ-অপছন্দের কথা মাথায় রেখেই অভিনয় করছি। যাতে দর্শকরা আমার কাজ দেখে হতাশ না হয়।

প্রতিনিয়তই সেই চেষ্টা করছি। কতটুকু পেরেছি, দর্শকই ভালো বলতে পারবেন। আমি মনে করি, অভিনয়ের মধ্য দিয়ে নিজেকে ভাঙতে পারলেই প্রকৃত শিল্পী হয়ে ওঠা যায়। যে জন্য প্রতিটি কাজেই চ্যালেঞ্জ নিতে চাই। শুধু নামমাত্র অভিনয় করলে হবে না। অভিনয় অনেক কঠিন কাজ। টিকে থাকতে নিয়মিত অভিনয় দক্ষতা বাড়াতে হয়। কারণ এখন প্রতিযোগিতার যোগ। আমার পরেও অনেক ভালো ভালো শিল্পী এসেছে এবং তারাও অনেক কাজ করছে। অল্পতেই অনেক কিছু পেয়েছি বলে কাজে ফাঁকি দিতে চাই না।

গত ঈদে কেয়া পায়েলের ১৪টি খণ্ডনাটকে এবং তিনটি সাত পর্বের ঈদ ধারাবাহিকে অভিনয় করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন।

কেয়া পায়েলের উল্লেখযোগ্য নাটকগুলো হচ্ছেÑ ভুলোনা আমায়, সুইটি আই লাভ ইউ, এক জনমে, নসিব, সুপার অনেস্ট, ঘোড়ার ডিমের বিয়ে, মিশন ফেইল, বিবাহ করিতে ইচ্ছুক, স্বাক্ষর, বেঈমান কলিগ, লিলুয়া, তোমার আমি, ড্রাইভার আজিজ, টাকা, পরাণ, ফিফটি ফিফটি লাভ, পরিণাম, কেন বোঝ না, চমন বাহার প্রমুখ।

প্রায় দুই বছর আগে সংবাদমাধ্যমকে অভিনেত্রী কেয়া পায়েল বলেছিলেন, ‘প্রেম করি না, সরাসরি বিয়ে করব।’ কিন্তু কয়েক বছর ধরেই প্রেম করছেন এ অভিনেত্রী।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, অনেকটা চুপিসারেই বিয়ের কাজ সম্পূর্ণ করেছেন তিনি। পাত্র অভিনেত্রীর দীর্ঘদিনের প্রেমিক। মানিকগঞ্জের ছেলে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষে বর্তমানে ব্যবসা করছেন। তবে বিষয়টি অস্বীকার করে কেয়া পায়েল বলেন, আমার বিয়ের বিষয়টি সত্য নয়। আমি মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ডে শুধুই ঘুরতে গিয়েছিলাম। মাত্র ক্যারিয়ার শুরু করলাম। আরও কয়েক বছর পর বিয়ে করব। বিয়ে করলে সবাইকে জানিয়েই করব।’

২০১৭ সালে কলেজের একটি বিজ্ঞাপনের ফটোশুট থেকে মিডিয়ায় যাত্রা শুরু করেন কেয়া পায়েল। তারপর ২০১৮ সালে পরিচালক মিনার রহমানের মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেন কেয়া পায়েল। সে সময় গানটি বেশ জনপ্রিয়তা পায়।

তাহসান, হাবিব, ইমরানদের মতো শিল্পীদের গানের মডেল হয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। সেই বছরেই অভিনেতা জোভানের সঙ্গে নাটকে অভিষেক ঘটে। এ নাটকের মাধ্যমেই দর্শক হৃদয়ে জায়গা করে নেন। এরপর থেকেই আর পেছনে ফিরে তাকে হয়নি। ধাপে ধাপে তিনি বহু নাটকে অভিনয় করে নজর কাড়েন সবার। অভিনেতা মোশাররফ করিম, তৌসিব, আরফান নিশোদের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করে ব্যাপক আলোচনায় আসেন। শুধু নাটক কিংবা মিউজিক ভিডিও নয়, বড় পর্দায়েও নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন কেয়া পায়েল।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে