ছোট পোশাক পরায় বিমানে উঠতে বাধা অস্ট্রেলীয় তরুণীকে

ছোট পোশাক পরায় বিমানে উঠতে বাধা অস্ট্রেলীয় তরুণীকে

নারীদের পোশাক নিয়ে বিশ্বের রক্ষণশীল অনেক দেশেই বিভিন্ন নিয়মকানুন রয়েছে। নিয়ম ভাঙলে অনেক সময় শাস্তির মুখেও পড়তে হয়। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার মতো ‘মুক্ত’ দেশেও নারীর পোশাক নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে? শুনতে অবাক লাগলেও ছোট পোশাকের কারণেই এক অস্ট্রেলীয় তরুণীকে বিমানে উঠতে বাধা দেওয়া হয়। আর এমনটা ঘটেছে দেশটির প্রথম সারির একটি বিমানসংস্থায়। এমন খবরে অনেকেই হতবাক হয়েছেন।

ক্যাথরিন বাম্পটন নামের ওই তরুণী অ্যাডিলেড থেকে ভার্জিন অস্ট্রেলিয়ার একটি ফ্লাইটে গোল্ড কোস্ট যাওয়ার জন্য টিকিট কেটেছিলেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে বিমানে ওঠার সময়ই বাধাপ্রাপ্ত হন রিনি। বিমানবালারা তাকে জানান, ক্যাথরিনের ছোট পোশাকে পাইলটের আপত্তি রয়েছে। তাই তিনি নিজের পোশাক বদলে তবেই যেন বিমানে চড়েন। এ ঘটনায় রীতিমতো অবাক হন ওই তরুণী।

পরবর্তীতে এক সাক্ষাৎকারে দেশটির সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি জানান ক্যাথরিন। তিনি বলেন, ওই সময় যাত্রীদের সামনেই আমাকে পোশাক পরিবর্তনের কথা বলেন বিমানসেবিকা। যা আমাকে বিড়াম্বনায় ফেলে দেয়।

আমাকে বলা হয়, এই পোশাকে শরীরের অনেকটা অংশ দেখা যাচ্ছে, যা বিমানচালকের পছন্দ নয়। ওই সময় সবাই আমাকেই দেখছিল। যা খুবই অস্বস্তিজনক ছিল। এরপর একটি জ্যাকেট পরায় ক্যাথরিন বিমানে চড়ার অনুমতি পান।

ঘটনা জানতে পেরে অবাক ভার্জিন অষ্ট্রেলিয়া নামে ওই বিমানসংস্থার কর্মকর্তারাও। তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন। সংস্থাটির এক মুখপাত্র জানান, ভার্জিন অস্ট্রেলিয়া এদেশের জনপ্রিয়তম এয়ারলাইন্স। আমরা যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্যের বিষয়ে যথেষ্ট খেয়াল রাখি।

তিনি আরও জানান, হেনস্থার শিকার ওই তরুণী সরকারিভাবে এই ঘটনা নিয়ে কোনও অভিযোগ জানাননি। তবে আমরা তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাচ্ছি।

এদিকে, ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই অনেকেই ওই বিমানসংস্থার সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। মানুষ ভাবতেই পারছে না, দেশের জনপ্রিয় একটি বিমানসংস্থার ক্ষেত্রে এমন ঘটনা ঘটবে।

যাযাদি/ এমএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে