বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরে ব্রিফিংয়ে বেনজীর ও আজিজ প্রসঙ্গ

নিষেধাজ্ঞা বা অন্য পদক্ষেপ নেওয়ার আগে আমরা কিছু বলি না : ম্যাথু মিলার

যাযাদি ডেস্ক
  ৩০ মে ২০২৪, ১০:৫৮
আজিজ আহমেদ ও বেনজীর আহমেদ

দেশে এখন বেশ আলোচনায় আছেন সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ ও সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। এই দুইজনের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তাদের দুইজনের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে।

এদিকে এই ইস্যু এবার উঠেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের নিয়মিত ব্রিফিংয়েও। গতকাল এ দুজনকে নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নিজেদের অবস্থান ব্যক্ত করেছে ওয়াশিংটন। আজিজ আহমেদ ও বেনজীর আহমেদের বিরুদ্ধে ওঠা বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ম্যাথু মিলার বলেন, আপনার উল্লেখ করা অভিযোগ ও গণমাধ্যমের প্রতিবেদন সম্পর্কে আমি অবগত।

আমরা স্পষ্ট করেই বলেছি, আমরা বিশ্বাস করি দুর্নীতি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করে; সরকারকে অস্থিতিশীল করে এবং গণতন্ত্রকে দুর্বল করে। এ প্রশাসনের শুরু থেকেই আমরা দুর্নীতিবিরোধী কৌশলকে একটি মূল জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে পরিণত করেছি। এ কৌশল বাস্তবায়নের বিষয়ে বেশ কয়েকটি ঊর্ধ্বতন স্তরে আমাদের বিশদ পরিকল্পনা প্রকাশ করা হয়েছে। তবে আজকে আমার কাছে নতুন করে কিছু ঘোষণা করার নেই। এ ছাড়া নিষেধাজ্ঞা বা অন্যান্য পদক্ষেপ নেওয়ার আগে আমরা কিছু বলি না।

এর আগে দুর্নীতিতে সম্পৃক্ততার অভিযোগে সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয় দেশটি। গত সোমবার দিবাগত রাতে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে