শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

হাতে হাত রেখে চলন্ত ট্রেনের সামনে শুয়ে পড়লেন বাবা ও ছেলে, অতঃপর

যাযাদি ডেস্ক
  ১০ জুলাই ২০২৪, ০৯:৪০
ছবি-সংগৃহিত

বাবার বয়স ৬০, ছেলে মাত্র ৩৫। পারিবারিক ঝামেলা তাদের জীবনকে বিষিয়ে তুলেছে। এই সুন্দর পৃথিবীর মায়ার ছেড়ে অন্ধকারে বিলীন হবার ইচ্ছেই বেশি জাগ্রত হল তাদের মনে। তারপর যা হলো তা হৃদয়বিদারক। যারাই সিসিটিভি ফুটেজ দেখেছেন তারা চোখের পানি আটকাতে পারেননি।

ভারতের মহারাষ্ট্রে চলন্তে ট্রেনের নিচে শুয়ে পড়ে বাবা ও ছেলে আত্মহত্যা করেছেন। মুম্বাই থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে ভয়ান্দর রেলওয়ে স্টেশনে তারা দুজন আত্মহত্যা করেন। গতকাল সোমবার (৮ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর এনডিটিভি

বাবা ও ছেলের এই আত্মহত্যার ভয়াবহ দৃশ্য সিসিটিভির ফুটেজে ধরা পড়েছে। এতে দেখা যাচ্ছে, তারা একেঅপরের সঙ্গে কথা বলতে বলতে স্টেশন থেকে রেল লাইনের দিকে হেঁটে যাচ্ছেন। তখন তাদের পাশ দিয়ে একটি ট্রেনও যাচ্ছিল। হেঁটে প্লাটফর্মের শেষ প্রান্তে যাওয়ার পর তারা দুজন রেললাইনে নামেন।

ওই সময় তারা একেঅপরের হাত ধরে রেখেছিলেন। রেললাইনে নামার পর যখন তারা দেখতে পান অপর পাশের রেললাইন দিয়ে একটি ট্রেন আসছে, তখন সেখানে গিয়ে একসঙ্গে দুজন শুয়ে পড়েন।

নিহতরা হলেন, বাবা হারিশ মেহতা (৬০) ও তার ছেলে জয় মেহতা (৩৫)। দুইজনই নালাসোপাড়াতে থাকতেন।

তবে কী কারণে এ দুজন আত্মহত্যা করেছেন সেটি এখনো জানা যায়নি।

পুলিশ জানিয়েছে ইতিমধ্যে এই ঘটনায় একটি দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া তাদের আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত করা হবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে