বৃহস্পতিবার বিমায় চড়ে পুঁজিবাজারে উত্থান

বৃহস্পতিবার বিমায় চড়ে পুঁজিবাজারে উত্থান

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) বিমা খাতের প্রায় সব প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বাড়ায় দেশের পুঁজিবাজারে উত্থান হয়েছে।

দিনভর সূচকের ওঠানামা শেষে এ দিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বেড়েছে ২৭ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে ৬০ পয়েন্ট।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, মঙ্গল ও বুধবারের (২ ও ৩ মার্চ) মতো আজও বিমা কোম্পানির প্রায় সব শেয়ারের দাম বেড়েছে। এ খাতে তালিকাভুক্ত ৪৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৩৭টির, কমেছে পাঁচটির ও অপরিবর্তিত রয়েছে সাতটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। বীমা কোম্পানির শেয়ারের দাম এক থেকে ৯ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। এতে দাম বৃদ্ধির শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকার পাঁচটিই বিমা কোম্পানি।

পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ব্যাংক ও আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোর লভ্যাংশ দেওয়ার সীমা বেঁধে দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এ সিদ্ধান্তের কারণে বিনিয়োগকারীদের নজর এখন বিমা খাতের শেয়ারের দিকে। ফলে আবারও বিমা কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ছে। অর্থাৎ ‘বিমা তুঙ্গে পুঁজিবাজার’।

খাতটির পাশাপাশি বহুজাতিক কোম্পানি রেকিট বেনকিজার, মেরিকো, বার্জার পেইন্টস এবং দেশি বড় প্রতিষ্ঠান ইবনে সিনা, বেক্সিমকো ফার্মা এবং স্কয়ার ফার্মার শেয়ারের দাম বেড়েছে।

এতে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমার পরও বেড়েছে সূচক। এর ফলে বুধবার সূচক পতনের পর বৃহস্পতিবার সূচক বৃদ্ধির মধ্য দিয়ে সপ্তাহ পার করল দেশের পুঁজিবাজার।

এ দিন লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ২৭ দশমিক ৭০ পয়েন্ট বেড়ে পাঁচ হাজার ৫১৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অর্থাৎ সূচক সাড়ে পাঁচ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করেছে।

এ দিন শরিয়াহভিত্তিক কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসইএস সূচক পাঁচ দশমিক ৯৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ২৪৮ পয়েন্টে। বাছাই করা কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএস-৩০ সূচক কমেছে ২০ দশমিক ৩৭ পয়েন্ট।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৭টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বেড়েছে ১০০টির, কমেছে ১৫০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ১০৭টির শেয়ারের দাম। এ দিন লেনদেন হয়েছে ৭০৭ কোটি ৫৪ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল হয়েছিল ৭৭৫ কোটি ৮৪ লাখ টাকা।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বেক্সিমকো, রবি আজিয়াটা, বেক্সিমকো ফার্মা, জিবিবি পাওয়ার, ব্রিটিশ অ্যামেরিকান ট্যোবাকো, অরিয়ন ফার্মা, লঙ্কা-বাংলা ফাইন্যান্স, সামিট পাওয়ার, বিকন ফার্মা এবং লাফার্জহোলসিম লিমিটেড।

দাম বাড়ার শীর্ষে থাকা কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- রহিমা ফুড, ই-জেনারেশন, বিকন ফার্মা, জিবিবি পাওয়ার, শ্যাম্পুর সুগার মিলস, অরিয়ন ফার্মা,ইস্টার্ন ইনস্যুরেন্স, বাংলাদেশ জেনারেল ইনস্যুরেন্স, ক্রিস্টাল ইনস্যুরেন্স এবং এশিয়া ইনস্যুরেন্স লিমিটেড।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৬০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯৭৬ পয়েন্টে। লেনদেন হওয়া ২৫০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বেড়েছে ৮০টির, কমেছে ১০৫টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৬৫টির শেয়ারের দাম।

এ দিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩২ কোটি ৭৯ লাখ ৪৩ হাজার টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৩২ কোটি ৭৯ লাখ ৪৩ হাজার টাকা। যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে