রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
আইসিসির পরোয়ানা

পুতিনকে গ্রেপ্তার চেষ্টার অর্থ হবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ

নতুনধারা
  ২৪ মার্চ ২০২৩, ০০:০০

ম যাযাদি ডেস্ক

রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) পরোয়ানা জারি করার পর প্রেসিডেন্ট ভস্নাদিমির পুতিনকে বিদেশে গ্রেপ্তারের প্রচেষ্টাকে মস্কো 'যুদ্ধ ঘোষণা' হিসেবে দেখবে। বুধবার তিনি বলেছেন, পুতিনকে গ্রেপ্তার করা হলে রাশিয়ার অস্ত্র একটি দেশে আঘাত হানবে। সংবাদসূত্র : রয়টার্স, বিবিসি, আল-জাজিরা

মেদভেদেভ ২০০৮-২০১২ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। পুতিন ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর পর থেকে বারবার পারমাণবিক হুমকি দিয়েছেন মেদভেদেভ। গত বছরের ২৪ ফেব্রম্নয়ারি ইউক্রেনে পুতিন রাশিয়ার সেনা পাঠানোর পর বিভিন্ন সময় পারমাণবিক যুদ্ধের হুমকি দেন মেদভেদেভ।

গত সপ্তাহে ইউক্রেনে হামলার জন্য পুতিনের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ আনা হয় দ্য হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে। ইউক্রেনের শিশুদের নির্বাসনের দায়ে পুতিনের বিরুদ্ধে এই পরোয়ানা জারি করা হয়। আদালত ওই অভিযোগে পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন। তবে আইসিসির এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানাকে অর্থহীন হিসেবে আখ্যা দিয়েছে ক্রেমলিন।

অপরাধ আদালতকে হুমকি দিয়ে টুইটে মেদভেদেভ বলেছেন, হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে আদালতে আঘাত হানা হবে। তিনি বলেন, 'এটি চিন্তা করা সম্ভব সাগরে অবস্থানরত রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ থেকে একটি হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র হেগের আদালত ভবনের ভেতর আঘাত করেছে।'

কোনো দেশ পুতিনকে গ্রেপ্তার করলে রাশিয়ার অস্ত্র সেই দেশেও আঘাত হানবে বলে জানান মেদভেদেভ। তিনি বলেন, 'আসুন কল্পনা করা যাক- এটা স্পষ্ট যে, এটি এমন পরিস্থিতি হয়ত কখনই ঘটবে না- তবুও আসুন কল্পনা করা যাক, এটি ঘটছে। একটি পারমাণবিক রাষ্ট্রের বর্তমান প্রধানকে বলছেন, জার্মানির ভূখন্ডে আসুন ও গ্রেপ্তার হন। এটি কী? রাশিয়ান ফেডারেশনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা।' মেদভেদেভ বলেছেন, এমনটা যদি ঘটে, তাহলে 'আমাদের সব প্রচেষ্টা, রকেট এবং অন্যান্য অস্ত্র বুন্ডেস্ট্যাগে চ্যান্সেলর অফিসের এবং আরও অনেক কিছুর ওপর পড়বে।'

জার্মানি গেলে পুতিনকে গ্রেপ্তার

করা হবে : রাষ্ট্রদূত

এদিকে, যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) জারিকৃত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বাস্তবায়নের ইচ্ছা স্পষ্ট করেছেন জার্মান কর্মকর্তারা। ইউক্রেনে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত বুধবার বলেছেন, জার্মানির ভূখন্ডে পুতিন হাজির হলে তাকে নিশ্চিতভাবে গ্রেপ্তার করা হবে।

বুধবার ইউক্রেনে এক ব্রিফিংয়ে জার্মান রাষ্ট্রদূত আঙ্কা ফেল্ডুসেন বলেন, জার্মান ভূখন্ডে পুতিন হাজির হলে নিশ্চিতভাবে তাকে গ্রেপ্তার করা হবে। মঙ্গলবার জার্মানির আইনমন্ত্রীও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস পুতিনের বিরুদ্ধে আইসিসির গ্রেপ্তারি পরোয়ানার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। শলৎস বলেছেন, কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়। জার্মান রাষ্ট্রদূত বলেন, 'আমরা রোম স্ট্যাটিউটে স্বাক্ষর করেছি। শুধু আমরা নই, ১২০টির বেশি দেশ এতে স্বাক্ষর করেছে। ফলে এমন দেশগুলো সফরের ক্ষেত্রে জটিলতায় পড়বেন পুতিন।' রাষ্ট্রদূত আঙ্কা ফেল্ডুসেন বলেন, 'আমার কাছে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা খুব সময়োচিত বলে মনে হয়েছে।'

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে