রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭

ইউরোপ স্বার্থপর হতে পারে না, ফ্রান্স আছে :ম্যাখোঁ

ইউরোপ স্বার্থপর হতে পারে না, ফ্রান্স আছে :ম্যাখোঁ
ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ইতালির বিপর্যস্ত অবস্থায় ইউরোপ 'স্বার্থপরের মতো আচরণ' করতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। ইতালির তিনটি শীর্ষ দৈনিককে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শুক্রবার তিনি এমনটি বলেছেন। সংবাদসূত্র : আল-জাজিরা, এএফপি ফরাসি প্রেসিডেন্ট বলেন, 'ইতালিকে সাহায্যে ফ্রান্স সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে।' করোনাভাইরাস মোকাবিলায় রাশিয়া ও চীনের সাহায্য নিতে তাদের সঙ্গে ইতালিয়ানদের আলোচনায় নিজের উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন তিনি। সাক্ষাৎকারে ম্যাখোঁ বলেন, 'ফ্রান্স ইতালির পাশে আছে। চীনা ও রুশ সাহায্য নিয়ে ব্যাপক কথা হচ্ছে। কিন্তু কেন আমরা বলতে পারছি না, ফ্রান্স ও জার্মানি ইতালিকে ২০ লাখ মাস্ক ও কয়েক লাখ গাউন দেবে? এটা হয়তো যথেষ্ট নয়, কিন্তু এটা ভালো কিছুর শুরু হতে পারে।' তিনি আরও বলেন, 'আমাদের কেবল নিজেদের নিয়ে মত্ত থাকা উচিত নয়, যেমনটা আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বী ও অংশীদাররা বলে।' করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় শুক্রবার চীনকে টপকানো ইতালি প্রথমে ফ্রান্স ও জার্মানির কাছেই মাস্ক ও চিকিৎসা উপকরণের জন্য হাত পেতেছিল। দেশ দুটি রাজি না হওয়ায় রোম পরে চীন ও রাশিয়ার দিকে মুখ ঘুরিয়ে নেয়। ইউরোপের প্রভাবশালী দুই দেশ সহায়তা না করায় ইতালি তাদের সমালোচনা করার পাশাপাশি ইউরোপীয় সংহতি নিয়েও সে সময় প্রশ্ন তুলেছিল। চীন এরই মধ্যে ইতালির জন্য বিমানভর্তি মাস্ক ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠিয়েছে; রোমের ডাকে সাড়া দিয়েছে রাশিয়াও। ফরাসি প্রেসিডেন্ট বলেন, 'আমরা যদি সংহতি না দেখাই, ইতালি, স্পেন ও ইউরোপের অন্য দেশগুলো তখন তাদের ইউরোপীয় অংশীদারদের বলবে- আমরা যখন লড়াইয়ে ছিলাম, তোমরা তখন কোথায় ছিলে? আমি এ ধরনের স্বার্থপর ও বিভক্ত ইউরোপ চাই না।' ইতালির জন্য সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে চাইলেও ফ্রান্সের নিজের অবস্থাও খুব একটা সুবিধার নয়। আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা 'ওয়ার্ল্ডোমিটার'র তথ্যানুযায়ী, শনিবার পর্যন্ত দেশটিতে ৩২ হাজার ৯৬৪ জনের দেহে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ পর্যন্ত মৃতু্য হয়েছে প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে