কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলা ঠিক না :প্রধানমন্ত্রী

কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলা ঠিক না :প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন -ফোকাস বাংলা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা মানবধর্মে বিশ্বাস করি, সব ধর্মেই একথা বলা হয়। কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলা ঠিক না। আওয়ামী লীগ তা বিশ্বাস করে না। সব মানুষ সমান অধিকার ভোগ করবে।

জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ এবং বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নেতাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ে এসব কথা বলেন তিনি। ঢাকেশ্বরী মন্দিরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন সরকারপ্রধান।

সংখ্যালঘু হিসেবে না ভেবে নিজেদের বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে মনে করতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানবতা উন্নতির ধারণা নিয়েই কাজ করছে সরকার। তাই নিজেদের সংখ্যালঘু ভাববেন না। নিজের হীনম্মন্যতা নিয়ে বাঁচবেন না। সবসময় নিজেদের এই দেশের নাগরিক হিসেবে মনে করবেন। সমান অধিকার থাকবে এই আত্মবিশ্বাস নিয়ে চলতে পারলে দুষ্টু লোকেরা কিছু করতে পারবে না।

তিনি বলেন, এই মাটিতে যাদের জন্ম তারা নিজেদের মতো করে নিজেদের ধর্ম পালন করবে। দেশে সম্প্রীতির পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করা হয় বিভিন্ন সময়। সব ধর্মেই আছে, যারা এসব সমস্যা করার চেষ্টা করে। তবে কোনো ঘটনা ঘটলে ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

পিছিয়ে পরা জনগোষ্ঠীকে ধীরে ধীরে তুলে আনা হচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না, জীবন-জীবিকায় সচ্ছল হবে, সে লক্ষ্যে কাজ করছি। সবার জন্য সর্বজনীনভাবে করছি। মানবতার জন্য কাজ করা মানবতার উন্নতি করাই সরকারের লক্ষ্য।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে