বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯
walton1

শেরপুরে হিজড়াদের লাশ দাফনে কবরস্থান নির্মাণ ঘোষণা

ম শেরপুর প্রতিনিধি
  ০২ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০
তৃতীয় লিঙ্গ 'হিজড়া' জনগোষ্ঠীর মৃতু্যর পর লাশ সৎকার নিয়ে বিড়ম্বনা পোহাতে হয়। বিষয়টি জানার পর শেরপুরে সরকারি গুচ্ছগ্রামে বসবাসকারী হিজড়াদের জন্য পৃথক কবরস্থান নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন পুলিশ সুপার (এসপি) মো. কামরুজ্জামান। সেইসঙ্গে জেলার তালিকাভুক্ত ৫২ জন হিজড়ার মধ্যে যে কারও মৃতু্য হলে তিনি মরদেহ সৎকার এবং কাফন-দাফনের সব ব্যয় ব্যক্তিগতভাবে বহনের দায়িত্ব নেওয়ার কথাও জানান। শেরপুর জেলা হিজড়া কল্যাণ সংস্থার ৫ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দানকালে পুলিশ সুপার এমন ঘোষণা দেন। গত রোববার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার আন্ধারিয়া-সুতিরপাড় এলাকায় তৃতীয় লিঙ্গ জনগোষ্ঠীর গুচ্ছগ্রাম প্রাঙ্গণে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেককাটা, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা হিজড়া কল্যাণ সংস্থা। জেলা পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান তার বক্তব্যে হিজড়াদের পাশে থেকে তাদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন এবং তাদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করার বিষয়ে প্রতিশ্রম্নতি দেন। একইসঙ্গে তাদের আর্থিকভাবে সচ্ছল হতে স্থায়ী আয়-উপার্জনের মাধ্যম তৈরি করতে গৃহপালিত পশু গরু কিনে দেওয়ার ব্যবস্থা নেন। যাদের হস্তশিল্পের দক্ষতা রয়েছে, তাদের জন্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার ব্যবস্থা করবেন এবং তাদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে সব রকমের সহায়তা করবেন। আলোচনা পর্বে সভাপতিত্ব করেন জনউদ্যোগ শেরপুর কমিটির আহ্বায়ক শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ। জেলা হিজড়া কল্যাণ সংস্থার সভাপতি নিশি সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিহা জামান শাপলা, কামারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার জাহান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বারী চাঁন প্রমুখ। এ সময় জেলা হিজড়া কল্যাণ সমিতির সভাপতি নিশি সরকার হিজড়াদের বিষয়গুলো জনসম্মুখে তুলে ধরার জন্য জনউদ্যোগ শেরপুর কমিটির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে