বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০
walton
গভীররাতে রাস্তায় ফেলে পালায় চোর

চারদিন পর মায়ের কোলে লক্ষ্ণীপুরের শিশু ওহি

লক্ষ্ণীপুর প্রতিনিধি
  ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০০:০০

লক্ষ্ণীপুরে গভীররাতে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় কম্বল মোড়ানো একটি শিশু দেখতে পান পথচারী। এরপর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধারের পর পুলিশ তার পরিচয় শনাক্ত করে। পরে মাকে থানায় ডেকে নিয়ে শিশুটিকে তার কোলে তুলে দেয় পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, রাস্তায় পড়ে থাকা শিশুটির নাম মালিহা ইসলাম ওহি। তার বয়স মাত্র ৯ মাস। তার মায়ের নাম মরিয়ম বেগম। গত চারদিন আগে লক্ষ্ণীপুরের কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ অগ্রণী স্কুলের ক্যাম্পাস থেকে তাকে চুরি করে নিয়ে যান অজ্ঞাত এক নারী।

কমলনগর থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল জলিল বলেন, রোববার রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টায় থানার কাছে উপকূল কলেজের পেছনে মাটির রাস্তা দিয়ে পথচারী ইউছুপ বাড়ি যাওয়ার সময় কম্বল মোড়ানো একটি শিশু দেখতে পান। এ সময় তিনি চিৎকার দিয়ে লোকজন জড়ো করেন। পরে এলাকার লোকজন থানায় খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার এবং তার পরিচয় নিশ্চিত করে। এর আগে শিশুটির মা থানায় একটি জিডি করেন। এদিকে চুরির সঙ্গে জড়িত নারীকে এখনো শনাক্ত করা যায়নি।

শিশু মালিহার মা মরিয়ম বেগম বলেন, ওহির বড় বোন সাবিহা ইসলাম মিহি (৬) অগ্রণী রেসিডেন্সিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নার্সারির ছাত্রী। গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠান ছিল। সেখানে মালিহাকে নিয়ে যান মা মরিয়ম। মিহিকে সাজানোর জন্য চুলের ক্লিপ ও বেল্ট আনতে বিদ্যালয়ের পাশেই বাজারে যান মা মরিয়ম। এ সময় মায়া নামে ওই বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর কাছে মালিহাকে রেখে যান তিনি। এর মধ্যেই মায়ার কোল থেকে অচেনা এক নারী মালিহাকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ঘটনাস্থল এসে বিদ্যালয়ের সিসি ক্যামেরা যাচাই করে দেখতে পায় মাথায় লাল হিজাব, মুখে মাস্ক ও কালো বোরকা পরিহিত এক নারী শিশুটিকে কোলে নিয়ে বের হয়ে যাচ্ছে। বাজারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরা যাচাই করেও একই দৃশ্য দেখা গেছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে