logo
শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০ ৯ কার্তিক ১৪২৭

  স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০  

ভিডিও কলে ২০ তরুণীর ছবি ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার

ভিডিও কলে ২০ তরুণীর ছবি ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার
তানজিমুল ইসলাম রিওন

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও কলে অশ্লীল ছবি তুলে বস্নাকমেইল করার অভিযোগে বগুড়ায় তানজিমুল ইসলাম রিওন (২২) নামের এক যুবককে পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইন ও বস্নাকমেইল করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তার নিকট ২০ জন কিশোরী ও তরুণীর অশ্লীল স্থিরচিত্র ও ভিডিও ক্লিপ পাওয়া গেছে। পুলিশের ধারণা, তারা বস্নাকমেইলের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে এক স্কুলছাত্রীর নিকট থেকে ২৩ ভরি স্বর্ণ ও নগদ প্রায় অর্ধলাখ টাকা বস্নাকমেইল করে হাতিয়ে নেয়ার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পুলিশের নিকট রয়েছে। বগুড়ার সাইবার পুলিশের পরিদর্শক ইমরান মাহমুদ জানান, গ্রেপ্তারকৃত রিওনের বাড়ি নওগাঁর চকদেবপাড়ায়। বগুড়ার দুপচাঁচিয়ার চৌধুরী পাড়ায় নানার বাড়ি থেকে লেখাপড়া করে রিওন। সে বিবিএস'র শিক্ষার্থী। পুলিশ জানায়, সে কথাবার্তায় অত্যন্ত স্মার্ট। আর তা কাজে লাগিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিশোরী ও কলেজছাত্রীদের সঙ্গে প্রথমে বন্ধুত্ব তার পরে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাদের ভিডিও কলে নিয়ে আসত। এক পর্যায়ে মোবাইলে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও'র স্কিন শর্ট রেকর্ড করত। পরে এসব দিয়ে সে বস্নাকমেইল করত। বগুড়া সদরের দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে সে তার প্রতারণার ফাঁদে ফেলে ভিডিও কলের মাধ্যমে অশ্লীল ছবি ধারণ করে। এরপর সে ওই ছাত্রীকে জানায় টাকা ও স্বর্ণালংকার না দিলে সে এসব ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল করবে। লোকলজ্জার ভয়ে স্কুলছাত্রীটি পরিবারের কাউকে না জানিয়ে চলতি বছরের মে মাস থেকে ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রিওনকে ২৩ ভরি স্বর্ণ ও প্রায় ৪৮ হাজার টাকা দেয়। স্কুল ছাত্রীটির মা বাড়ির গহনা সরানোর বিষয়টি এক পর্যায়ে টের পায়। পরে অসহায় স্কুলছাত্রী মায়ের নিকট ঘটনা খুলে বলে। পরবর্তীতে পরিবারটি বগুড়া জেলা পুলিশের নিকট অভিযোগ করে। সাইবার পুলিশ বিষয়টি তদন্ত শুরু করে। ২৩ সেপ্টেম্বর এ বিষয়ে সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়। এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া চৌধুরীপাড়া এলাকা থেকে তানজিমুল ইসলাম রিওনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে বগুড়া সাইবার পুলিশ টিমের পরিদর্শক জানান। গ্রেপ্তারের পর রিওনের মোবাইল ফোনে অন্তত ২০ জন কিশোরী ও তরুণীর অশ্লীল ভিডিও ও স্থিরচিত্র পাওয়া গেছে। ম্যাসেঞ্জারে ভিডিওকলের মাধ্যমে এসব ছবি ধারণ করা হয় বলে পুলিশ জানায়। বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা এই ঘটনা অভিভাবক ও কিশোরী-তরুণীদের জন্য সতর্কতা হিসেবে উলেস্নখ করে বলেন, ছেলেমেয়েরা যে ডিভাইসটি ব্যবহার করছেন সেটি এবং তাদের সন্তান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কাদের বন্ধু নির্বাচন করছে সে বিষয়ে নজর দেয়াটা জরুরি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে