বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি গোলার শব্দে এখনো আতঙ্ক কাটেনি সীমান্তবাসীর

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি গোলার শব্দে এখনো আতঙ্ক কাটেনি সীমান্তবাসীর

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের তমব্রম্ন সীমান্তে মিয়ানমারের ভেতর থেকে মর্টারশেলের বিকট শব্দে এলাকার মানুষের আতঙ্ক এখনো কাটেনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে ১১টা পর্যন্ত থেমে থেমে কয়েকটি আর্টিলারি মর্টার বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে ওঠে এলাকা। কিছু সময় বন্ধ থেকে আবারও কয়েকটি বড় বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পান স্থানীয়রা। তবে শুক্রবার এই রিপোর্ট

লেখা পর্যন্ত তুমব্রম্ন এলাকায় বেলা ১১টায় একটি মাত্র গোলার আওয়াজ শুনতে পেয়েছেন বলে জানান স্থানীয় বাসিন্দা আবদুল আজিজ।

নাইক্ষ্যংছড়ি-মিয়ানমার সীমান্তের ঘুমধুম থেকে আসারতলী পর্যন্ত সীমানা পিলারের মধ্যে বেশি স্পর্শকাতর অবস্থায় রয়েছে তমব্রম্নর ৩৪ ও ৩৫ নম্বর পিলার। এই দুই পিলারের মাঝখান দিয়েই প্রতিদিন মিয়ানমারের থেকে বিস্ফোরণের শব্দ ভেসে আসে।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আলম বলেন, এলাকার মানুষ এক কঠিন সময় অতিক্রম করছে। অনেকে রাতে ঘুমাতে পারছে না। আবার আনেকে রাতের বেলায় সীমান্ত জনপদের নিজ বাড়ি ছেড়ে দূরের স্বজনদের বাড়িতে রাত্রিযাপন করছেন।

ঘুমধুমের স্থানীয় একজন সংবাদ কর্মী জানান, বুধবারের চেয়ে বৃহস্পতিবারের বিস্ফোরণ হয়েছে বেশি। তমব্রম্ন বাজারের ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হোসেন বলেন, 'সিদ্ধান্ত নিয়েছি এই আতঙ্ক যতদিন না কাটছে ততদিন দিনের বেলায় কিছু সময় দোকানদারি করব। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার আগের নিয়মে ফিরে আসব।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বলেন, 'আমিও সীমান্ত পয়েন্টে মিয়ানমার থেকে দেশের অভ্যন্তরে ভেসে আসা বিকট শব্দ শুনেছি।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে