logo
বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৫

  যাযাদি রিপোর্ট   ২৩ মার্চ ২০২০, ০০:০০  

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জরুরি অবস্থার পরামর্শ দেয়নি : তথ্যমন্ত্রী

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জরুরি অবস্থার পরামর্শ দেয়নি : তথ্যমন্ত্রী
রোববার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ -যাযাদি

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বাংলাদেশকে আংশিক বা পুরোপুরি লকডাউন এবং জরুরি অবস্থা ঘোষণার মতো কোনো পরামর্শ দেয়নি বলে দাবি করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, গতকাল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে উদ্ধৃত করে এ ধরনের যে নিউজ প্রকাশ হয়েছে, এটা ঠিক নয়। এ ধরনের পরামর্শ তারা দেয়নি। রোববার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। শনিবার রাজধানীর বনানীতে নিজ বাসভবনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, যুক্তরাষ্ট্রের কমিউনিকেবল ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রটেকশনের (এসডিসিপি) প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বিদায়ী মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশকে আংশিক বা পুরোপুরি লকডাউন এবং জরুরি অবস্থা ঘোষণার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তথ্যমন্ত্রী বলেন, চলমান পরিস্থিতিতে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে। ইতোমধ্যে বহির্বিশ্বের সঙ্গে পেস্নন যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অন্য পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আবাসিকের বরাত দিয়ে গতকাল যে সংবাদটি প্রকাশ করা হয়েছে, এটি ঠিক নয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, তারা এ ধরনের পরামর্শ দেয়নি। ভবিষ্যতে কী করতে হতে পারে সে আশঙ্কা নিয়ে আলোচনা করেছে। কিন্তু এই মুহূর্তে সবকিছু লকডাউন করে দেয়ার মতো পরামর্শ তাদের পক্ষ থেকে দেয়া হয়নি বলে তারা জানিয়েছে। করোনা আতঙ্কের মধ্যে বেসরকারি টেলিভিশন এসএ টিভির ৩২ জন সংবাদকর্মী ছাঁটাই প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এমন সময় চাকরিচু্যত করার বিষয়টি দুঃখজনক, অনভিপ্রেত। আমি আজই জানলাম। আরও বিস্তারিত জেনে কী করা যায়, সেটি করা হবে। আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব ব্যবস্থা নেব। তথ্যমন্ত্রী বলেন, পেস্নগের পর পৃথিবীতে এত বড় দুর্যোগ আগে দেখিনি বা আসেনি। পেস্নগে কয়েক কোটি মানুষ মারা গিয়েছিল। করোনায় ইতোমধ্যে তিন লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এবং হাজার হাজার মানুষ মৃতু্যবরণ করেছে। এটি একটি বৈশ্বিক দুর্যোগ। সমস্ত বিশ্বে এই দুর্যোগ ছড়িয়ে পড়েছে। আমরা যে যার অবস্থান থেকে চেষ্টা করছি। এই দুর্যোগ থেকে রাষ্ট্রকে রক্ষা করব। 'তথ্য মন্ত্রণালয় দায়িত্বশীল অবস্থান থেকে দেশের মিডিয়াব্যক্তিত্বদের দিয়ে বিভিন্ন সচেতনাতামূলক বিজ্ঞাপন তৈরি করে বিটিভির মাধ্যমে প্রচার করছে। অন্য টিভিতেও পাঠানো হয়েছে। সেখানেও প্রচার করা হচ্ছে। আরও কিছু টিভি চ্যানেলে পাঠানো হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে