নতুন রোমাঞ্চের খোঁজে তাসকিন

নতুন রোমাঞ্চের খোঁজে তাসকিন
জাতীয় দলের ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদ -ওয়েবসাইট

২০১৫ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপে দারুণ বল করেই তুমুল সাড়া ফেলেছিলেন তাসকিন আহমেদ। কিন্তু পরে ওই বিশ্বকাপ শব্দটাই তার কাছে হয়ে গিয়েছিল হাহাকারের। ২০১৬ টি২০ বিশ্বকাপ চলাকালীন অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের কারণে ছিটকে পড়েছিলেন। আর সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপে মেলেনি দলে জায়গা। আবার আরেকটি বিশ্বকাপ আসতে ফিরেছেন সেরা অবস্থায়, অস্বস্তিকর স্মৃতি সরিয়ে নতুন রোমাঞ্চও তাই দোলা দিচ্ছে তাকে।

অস্ট্রেলিয়ায় ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সাফল্যের বড় নায়ক ছিলেন তাসকিন। ডানহাতি তরুণ এই পেসারের কাঁধে বড় প্রত্যাশা দেখতে শুরু করেছিল দল। কিন্তু এক বছর পরই পেতে হয় দুঃসহ অভিজ্ঞতা। ২০১৬ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ভালো বল করছিলেন তিনি, ছিলেন দলের অন্যতম সেরা অস্ত্র। কিন্তু টুর্নামেন্টের মাঝপথে বোলিং অ্যাকশন হয়ে পড়ে অবৈধ, ছিটকে যান টুর্নামেন্ট থেকে। অ্যাকশন বদলে পরীক্ষা দিয়ে ফিরতে হয়েছেন প্রায় নতুন করে।

এরপর ছন্দ হারিয়ে পথ বেঁকে গিয়েছিল তার। পারফরম্যান্স নিয়ে সংশয় থাকায় জায়গা পাননি ২০১৯ বিশ্বকাপ দলেও। তখন মানসিকভাবে অনেকটাই ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। তবে এরপর দুই বছর কঠোর পরিশ্রম আর মনোবল দিয়ে ফিরে পেয়েছেন হারানো জায়গা। টেস্ট, ওয়ানডের পর টি২০ও দিচ্ছেন ভালো করার আভাস। বুধবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে পেছনটা মুছতে চাইলেন তিনি, 'সত্যি কথা বলতে দুইটা স্মৃতিরই আলাদা আলাদা... যেগুলো অতীত, বর্তমানেই নজর দিতে চাই।'

বর্তমান মানেই আরেকটি টি২০ বিশ্বকাপ। সেদিকেই সব রোমাঞ্চ নিয়ে অপেক্ষা তার, 'আমি অনেক খুশি যে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছি এবার। আমি খুব রোমাঞ্চিত যে খেলতে পারব ইনশালস্নাহ। ওমানে এর আগে আমার কখনো খেলতে যাওয়া হয়নি। এমনকি দুবাইতেও যে ইভেন্টগুলো হয়েছে আমি এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচ খেলিনি। ওমান ও দুবাইতে খেলাটা একদম নতুন হবে যদি দলে সুযোগ হয়। আমি রোমাঞ্চিত, একই সময়ে আমি চাই ভালো কিছু উপহার দিয়ে ম্যাচ জেতাতে। আর দলকে দারুণভাবে সাহায্য করতে।'

সাম্প্রতিক সময়ে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১০ টি২০ মধ্যে মাত্র একটির একাদশে সুযোগ মিলেছিল তাসকিনের। মূলত মন্থর উইকেটের কারণেই তাকে খেলানো যায়নি। তবে বিশ্বকাপের ভিন্ন কন্ডিশনে দলে যে তার দরকার সেটা টের পাচ্ছেন এই ডানহাতি পেসার, 'কন্ডিশনের কারণে গত দুটা টি২০ সিরিজ খেলতে পারিনি কিন্তু শেষ একটা ম্যাচ খেলা হয়েছে। প্রস্তুতি অনুযায়ী ওটিস গিবসন ও টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কাজ করা হচ্ছে। প্রস্তুতির জন্য ওখানে গিয়েও আমরা বেশ কিছু সময় পাব। আমার বিশ্বাস আমরা ভালো কিছু করতে পারব, কারণ আমাদের দলের জন্য এবার ভালো করা অনেক বেশি সম্ভব।'

নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষ করে ছুটিতে আছেন ক্রিকেটাররা। তবে তাসকিন নিজ উদ্যোগে চালাচ্ছেন অনুশীলন। বিশ্বকাপ খেলতে ৩ অক্টোবর ওমান যাবে বাংলাদেশ দল। প্রথম ম্যাচের আগে সেখানে চলবে দুই সপ্তাহের ক্যাম্প। এই সময়টায় পরিস্থিতি বুঝে নিজেকে তৈরি করতে চান তাসকিন, 'যে রকম কন্ডিশনই হোক সে রকম পরিকল্পনামাফিক প্রয়োগ করতে হবে। যখন কাটার কম ধরে তখন ইয়র্কার বা লেন্থ বলের প্রয়োগটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ হবে। অবশ্যই আইসিসি ইভেন্ট, মাথায় থাকবে ফ্ল্যাট ট্র্যাক বা স্পোর্টিং উইকেট হবে। চ্যালেঞ্জিং হবে বোলারদের জন্য তবে একই সময়ে প্রয়োগটা ভালোভাবে করতে পারলে ভালো করার সুযোগও অনেক থাকবে।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে