রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

বৈদেশিক মুদ্রার ৮০% ব্যয় করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলো

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক
  ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০০:০০

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডলার সহায়তা নিয়ে সরকারি আমদানির জন্য জুলাই-ডিসেম্বর মাসে নিজেদের বৈদেশিক মুদ্রার ৮০% ব্যয় করেছে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো।

২০২৩ অর্থ-বছরের প্রথম ছয় মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক ৭.৮ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে। এর মধ্যে খাদ্য, সার এবং জ্বালানি আমদানির জন্য রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোকে ৭.২ বিলিয়ন ডলার সরবরাহ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে এ তথ্য।

চলতি অর্থ-বছরের জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে আমদানি হয়েছে ১০.৬৮ বিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে সরকারি পণ্য আমদানি হয়েছে ৮.৪১ বিলিয়ন ডলার, যা তাদের মোট আমদানির প্রায় ৮০ শতাংশ।

রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংক গত ছয় মাসে ২.৮৫ বিলিয়ন ডলার ইম্পোর্ট এলসি খুলেছে। এর মধ্যে সরকারি আমদানির পরিমাণ ছিল ২.৬৯ বিলিয়ন ডলার। যা তাদের মোট আমদানির ৯৪%।

এছাড়া এই সময়ে বেসরকারি আমদানি ছিল মাত্র ১৬১ মিলিয়ন ডলার। একইভাবে, ২০২৩ অর্থবছরের প্রথমার্ধে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মোট আমদানির মধ্যে অগ্রণী, জনতা এবং রূপালীর সরকারি আমদানি ছিল যথাক্রমে ৬৮%, ৭৭.৪৩% এবং ৮০%।

ব্যাংকাররা বলেন, দেশের ডলারের সংকটের কারণে রিজার্ভ কমতে থাকায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক বেসরকারি ব্যাংকগুলোর কাছে ডলার বিক্রি বন্ধ রেখেছে। এখন যা ডলার বিক্রি করছে সরকারি ব্যাংকগুলোর কাছেই।

এছাড়া, কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলার বিক্রির পূর্বে কোন এলসি বাবদ ডলার ছাড় করবে তা যাচাই-বাচাই করে দিচ্ছে। তা যদি সরকারি আমদানি হয় অথবা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য হয় তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলার দিচ্ছে। যার কারণে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর আমদানির পরিমাণ বেশি।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে