নবীগঞ্জে পিতৃপরিচয়ের দাবিতে মামলা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীর

নবীগঞ্জে পিতৃপরিচয়ের দাবিতে মামলা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীর

নবীগঞ্জে অনাগত সন্তানের পিতৃপরিচয়ের দাবিতে হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতে মামলা দায়ের করেছেন অসহায় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে। মামলার আসামি হলেন বহু অপকর্মের হোতা মৃত তাজিম উল্লার ছেলে জসিম উদ্দিন। মামলার বাদী মৃত কদর আলীর মেয়ে নুন নেছা। মামলাটি বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে নবীগঞ্জ থানায় এফআইআর হিসেবে গণ্য হলে আসামি পলাতক থাকে।

জানা যায়, উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের বাউসা গ্রামের মৃত কদর আলীর বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী স্বামী পরিত্যক্তা কন্যা নুনু নেছাকে (২৪) প্রায় ৮/৯ মাস আগে বাড়িতে একা পেয়ে গভীর রাতে পাশের বাড়ির মৃত তাজিম উল্লার পুত্র জসিম উদ্দিন বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দৈহ্যিক সর্ম্পক করে। মেয়ের মাও মানসিক ভারসাম্যহীন। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে লম্পট জসিম উদ্দিন একাধিক দিন নুন নেছার সঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর মতো মেলামেশা করার এক পর্যায়ে মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়ে। এতে নুন নেছার পরিবার তার অনাগত সন্তানের পিতৃপরিচয় এবং তাকে বিয়ে করার জন্য জসিমকে বললে সুচতুর জসিম তা অস্বীকার করে। এক পর্যায়ে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নুন নেছা তার অনাগত সন্তানের পিতৃপরিচয়ের দাবি নিয়ে সমাজপতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোনো বিচার পায়নি। পরে সংশ্লিষ্ট আইনে জসিম উদ্দিনকে আসামি করে হবিগঞ্জের নারী ও শিশু আদালতে মামলা দায়ের করে। বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি এফআইআর হিসেবে রুজু করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নবীগঞ্জ থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। মামলার খবরে মামলার আসামি গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে গর্ভবতী মেয়ে তার অনাগত সন্তানের পিতৃপরিচয়সহ ন্যায়বিচারের দাবি জানিয়েছে।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে