ঝিনাইদহে ঘরে থাকতে চাচ্ছে না মানুষ

ঝিনাইদহে ঘরে থাকতে চাচ্ছে না মানুষ

সারা দেশের ন্যায় ঝিনাইদহে সর্বাত্মক লকডাউনের তৃতীয় দিনে জেলা শহরে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ বিভাগ ও জেলা প্রশাসন। শুক্রবার সকাল থেকেই শহরের আরাপপুর, পোস্ট অফিস মোড়, চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশের পক্ষ থেকে চেকপোস্ট বসানো হয়। শহরে চলাচলকারীদের তথ্য যাচাই করে শহরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। বিনা কারণে বের হওয়াদের জরিমানা করা হচ্ছে।

তারপরও ঘরে থাকতে চাচ্ছে না মানুষ। তারা নানা অজুহাতে রাস্তায় বেরিয়ে আসছে। স্বাস্থ্যবিধি না মানাদের সংখ্যা বেশি উপজেলা শহরগুলোতে। খোলা হচ্ছে দোকানপাট।

শুক্রবার সকালে শৈলকুপা উপজেলা শহরের কবিরপুর, চৌরাস্তা মোড়, হলমার্কেট, হাজী মোড়সহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে মানুষের চলাচল বেড়েছে। মুদি দোকান থেকে শুরু করে পোশাকের দোকানও খুলতে দেখা গেছে। দোকানে একটি পাল্লা খোলা রেখে চলছে বেচ-কেন। রিক্সা, ভ্যান, মোটর সাইকেল যোগে চলাচল করছে মানুষ। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউন বাস্তবায়ন চোখে পড়নি পুলিশের ভূমিকা। কোন মোড়ে পুলিশের কার্যকর ভূমিকা একেবারেই ছিল না। ছিল না কোন চেকপোস্ট। সেই সাথে দেখা মেলেনি উপজেলা প্রশাসনের কোন তৎপরতা। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হওয়ার কথা থাকলেও কোথাও তা চোখে পড়েনি।

এ ব্যাপারে শৈলকুপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা লিজা বলেন, সকাল থেকে বের হইনি। একটু পর বের হবো। দোকানা পাট খোলা হচ্ছে এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কি করার আছে বলেন, মানুষকেও তো একটু সচেতন হতে হবে।

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে