ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের  বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আল-মামুন সরকারের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার রাতে আল-মামুন সরকার বাদি হয়ে সদর মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম-(২৫)কে প্রধান আসামী করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবস উপলক্ষে জেলা শিল্পকলা একাডেমির মিলনায়তনে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বঙ্গবন্ধুর খুনি তাহের উদ্দিন ঠাকুর এবং তার সুবিধাভোগী আত্মীয়দের বিষয়ে তীব্র সমালোচনা করে বক্তব্য রাখেন আল মামুন সরকার। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাতেই আল-মামুন সরকারকে মোবাইল ফোনে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন তাহের উদ্দিন ঠাকুরের নিকটাত্মীয় ও মামলার আসামী সৈয়দ নজরুল ইসলাম। এর পরের দিন থেকে সৈয়দ নজরুল ইসলাম ধারাবাহিকভাবে নিজের ফেসবুক আইডিতে আল-মামুন সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা, ভিত্তিহীন এবং চরম মানহানিকর স্ট্যাটাস দিয়ে আসছেন। এ বিষয়ে তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

গত ২৫ জুলাই সৈয়দ নজরুল ইসলাম তার ফেসবুক আইডিতে আল মামুন সরকারের শ্বশুর প্রয়াত ফরিদ উদ্দিন আহাম্মদ সম্পর্কে অশালীন ও মানহানিকর মন্তব্য করেন। পাশাপাশি তিনি প্রয়াত ফরিদ উদ্দিন আহাম্মদের বাড়িটিকে বঙ্গবন্ধুর খুনী শাহরিয়ারের বাড়ি হিসেবে উল্লেখ করেন।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মামলা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সৈয়দ নজরুল ইসলাম অগ্নিকান্ডের ঘটনার পর সাংবাদিকদের জানান, আমি কি এই কাজ করতে পারি? আমি সব সময়ই নাশকতার বিরুদ্ধে। আমি যারা নাশকতা করেছে তদন্ত করে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবি জানাই।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে