সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

আলো ছড়াচ্ছে "আলোর পথে লংগদু"

লংগদু (রাঙামাটি) প্রতিনিধি
  ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১:৪৭
আলো ছড়াচ্ছে "আলোর পথে লংগদু"

বছরের পর বছর স্বেচ্ছায় মুমূর্ষু রোগীদের নিয়মিত রক্ত দান করে মানবতার সেবায় এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন আলোর পথে লংগদু নামক মানবিক এই সংগঠনটি। এ পর্যন্ত প্রায় ৫ হাজার ব্যাগ রক্ত দিয়ে মুমূর্ষু রোগীদের বাঁচিয়ে তোলার কাজে এগিয়ে এসেছেন সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবী নেতৃবৃন্দ। লংগদুসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ বিনামূল্যে রক্ত পাচ্ছেন এখান থেকে।

আলোর পথে লংগদু মূলত রক্ত যোদ্ধাদের বিনামূল্যে রক্ত দানের শক্তি ঘর। রক্ত প্রয়োজন, এমন কথা শুনলেই সংগঠনটির সদস্যরা অস্থির হয়ে যায় রক্ত জোগাড় করে দিতে। মানুষের রক্ত লাল। এ লাল ভালোবাসা বিলিয়ে শান্তি পান তারা।

কারো রক্তের প্রয়োজন পড়লে সংগঠনের সকলে মিলে তা যতদ্রুত সম্ভব সংগ্রহ করে দেয়ার চেষ্টা করেন। তারা নিয়মিত একটি ডায়েরি সংরক্ষণ করেন। আলোর পথে লংগদুর অধীনে শতাধিক শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষ রয়েছে এই সংগঠনে। ডায়রিতে স্বেচ্ছাসেবী এ সংগঠনের নেতৃবৃন্দের নিকটাত্মীয়-স্বজন, বন্ধু এমনকি পরিচিতজনদের রক্তের গ্রুপ মোবাইল নম্বরসহ অসংখ্য ব্যক্তির নাম রয়েছে। কারও রক্ত লাগলে তাদের সঙ্গে মোবাইলে অথবা সরাসরি যোগাযোগ করলে তাৎক্ষণিক ওই ব্যক্তিকে কোনো মূল্য ছাড়াই রক্ত সংগ্রহ করে দেন।

আলোর পথে লংগদু সংগঠনের সভাপতি খালেদুল আলম শাহেদ জানান, মানুষ যখন খুব বিপদে পড়ে তখন অন্য কারো শরণাপন্ন হয়। বিশেষ করে যখন রক্তের প্রয়োজন হয় তখন মানুষ দিশেহারা হয়ে ওঠে। কোথায় পাবে? কীভাবে পাবে? কার সঙ্গে যোগাযোগ করলে রক্ত পাওয়া যাবে? সেই চিন্তা যেন তখন আকাশ সমান হয়ে দাঁড়ায়। এরই মধ্যে একটা অন্যরকম অনুভূতি হয় যখন কারও বিপদে পাশে দাঁড়াতে পারি। রক্তের পোস্ট বা মেসেজ পেলেই সাধ্যমতো চেষ্টা করি রক্ত জোগাড় করে দিতে। যখন রক্ত জোগাড় করে দিই তখন রক্ত গ্রহীতা ও তার আত্মীয়-স্বজনের হাসিমুখ দেখতে পাই। তখনকার অনুভূতি বোঝানোর মতো নয়। রক্ত জোগাড় করে দিলে মনে প্রশান্তি কাজ করে। কারও মুখে হাসি ফোটাতে পারার আনন্দ আসলেই অন্যরকম।

তিনি আরও বলেন, প্রায় ৪ বছর ধরে অসুস্থ মানুষদের রক্ত সংগ্রহ করে দেয়ার এ কাজটি করে যাচ্ছি। এ পর্যন্ত প্রায় ৫ হাজার মানুষকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে রক্ত সংগ্রহ করে দিয়েছি। আমি নিজেই কয়েকবার রক্ত দিয়েছি। কোনো ব্যক্তির রক্তের প্রয়োজন জানালে বন্ধু, পরিচিতজন, নিকটাত্মীয়দের কাছে রক্তদানের জন্য অনুরোধে করি। সে ব্যক্তি সম্মত হলে অসুস্থ ব্যক্তিকে রক্তদান করা হয়।

স্থানীয় শিক্ষক ওসমান গণি নামে একজন জানান, সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী মানবিক এ সংগঠনটি দীর্ঘদিন ধরে মানুষদের বিনা অর্থে রক্ত দিয়ে সহযোগিতা করছে। তাদের এ কাজে আমরাও সহযোগিতার চেষ্টা করি।

এবিএস মামুন নামে এক সাংবাদিক জানান, রক্তদান স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। আলোর পথে লংগদু সংগঠনটি অনেক মানুষকে রক্ত সংগ্রহ করে দেন। এতে অনেক মানুষ উপকৃত হয়।

প্রকৃতি ও জীবন ক্লাবের অন্যতম সদস্য আরমান খান জানান, আমরা অনেক সময় দেখি হাসপাতালে অনেক মুমূর্ষু রোগীর রক্তের প্রয়োজন হয়। ওই সময় এ সংগঠনকে জানানো মাত্র বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করে রক্ত সংগ্রহ করে দেয়। এটি খুবই ভালো কাজ। তাদের এই কাজ সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। এছাড়া এ সংগঠনের সাহায্যে অনেককে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে দিয়েছেন।

আলোর পথে লংগদুর সংগঠনটির একঝাঁক তরুণ স্বপ্ন দেখেন- সুন্দর আর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার; আর রক্তের কোন‌ অভাব থাকবে না বাংলাদেশে। সবাই রক্তদানে উৎসাহিত হবেন।

উল্লেখ্য, অ-লাভজনক, অরাজনৈতিক, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি ২০২০ সালের ৯ই ফেব্রুয়ারি "চলবো মোরা একসাথে, জয় করবো মানবতাকে" এ প্রতিপাদ্য সামনে নিয়ে পথ চলা শুরু করেছিল আলোর পথে লংগদু।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে