রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

মুরগির পা খাওয়ার পরামর্শ

যাযাদি ডেস্ক
  ২০ মার্চ ২০২৩, ১২:৫২
ফাইল ছবি

মুরগির পায়ের দাম ২০ মিশরীয় পাউন্ড বলে জানান তিনি। এ ছাড়া মিশরের গিজা মার্কেটে পোল্ট্রি মুরগি বিক্রেতার পাশে দাঁড়িয়ে এক ব্যক্তি বলছিলেন, হে সৃষ্টিকর্তা আমাদের মুরগির পা খাওয়ার মতো অবস্থায় নিও না।

চরম অর্থনৈতিক সংকটে মিশর। বর্তমানে এমনই ভয়াবহ অবস্থা দেশটির নাগরিকরা তাদের পরিবারকে ঠিকমতো খাওয়াতে পারছে না। এই নিয়ে জনগণের মধ্যে প্রবল ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এমন সংকটকালে দেশটির সরকার জনগণকে পুষ্টি ঘাটতি পূরণে মুরগির পা রান্না করে খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিশরের জনগণ সাধারণত মুরগির পা খায় না। তারা সেগুলো ফেলে দেয় এবং রাস্তার কুকুর-বিড়াল তা খায়। কিন্তু সরকারের সবশেষ এমন পরামর্শে চরম খেপেছে জনগণ, সেই সঙ্গে এর প্রবল সমালোচনা চলছে।

বর্তমানে বিশ্বের অনেক দেশই মুদ্রাস্ফীতিতে ভুগছে এবং তা ৩০ শতাংশের একটু ওপরে আছে। মিশর এর মধ্যে অন্যতম। এর আগে রান্নার তেল ও পনিরের মত পণ্য দেশটির সাধারণ জনগণের নিত্যদিনের রান্নার প্রধান উপকরণ ছিল। কিন্তু বর্তমানে এসব পণ্য তাদের কাছে বিলাসিতা হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসব পণ্যের দাম গেল কয়েক মাসের মধ্যে দুই থেকে দিনগুণ দাম বেড়েছে। ৬০ বছর বয়সী উইদাদ, যিনি তিন সন্তানের মা বিবিসি'কে বলেন, আমি মাসে হয়তো একবার মাংস খেতে পারি, বা আমি এটা কিনতে একদমই পারছি না। এখন একটি ডিমের দামও ৫ মিশরীয় পাউন্ড হয়েছে।

এক বছর আগেও উইদাদ তার পেনশনের টাকায় স্বাচ্ছন্দ্যে চলতে বলে জানান। তবে তার মতো এখন অনেকেই খাবার জোগাতেই হিমশিম খাচ্ছেন।

উইদাদ বলেন, একজন বিক্রেতা মুরগির হাড় ছাড়া মাংস এক কিলোর দাম ১৬০ মিশরীয় পাউন্ড বলছে। অন্যরা ১৭৫, ১৯০ এমনকি ২০০ মিশরীয় পাউন্ডও চাইছে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে