রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

যে কারণে নিউ ইয়র্কে চাকরি ছেড়েছেন ৫ লাখ মানুষ

যাযাদি ডেস্ক
  ২৬ মে ২০২৪, ০৯:১৩
ছবি-সংগৃহিত

হঠাৎ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে জনবহুল শহুর ছেড়ে চলে যাচ্ছে মানুষ। হয়ত এর অন্যতম কারণ জীবনযাত্রার মান। নিউ ইয়র্ক শহরে থাকতে হলে গুনতে হয় বাড়তি খরচ। আর খরচ বাঁচাতে শহর ছাড়ার হিড়িক। এতে বিপাকে পড়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মালিক। কারণ গত কয়েকমাসে প্রায় ৫ লাখের বেশি মানুষ চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন। বাড়তি বেতনেও জনবল পাওয়া যাচ্ছে না।

জানা যায়, বিগত দুইশত বছর ধরে নিউ ইয়র্ক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় ও সবচেয়ে সম্পদশালী শহর। শহরটি একসময় নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের রাজধানী এমনকি সমগ্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেরও রাজধানী ছিল। বর্তমানে নিউ ইয়র্ক শহর বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বাণিজ্যিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষা কেন্দ্রগুলির একটি।

আমেরিকার নিউইয়র্কে গত তিন মাসে চাকরি ছেড়েছেন প্রায় ৫ লাখ মানুষ। কর্মচারীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে নিউইয়র্ক স্টেট ডিপার্টমেন্ট।

এর আগে এত অল্প সময়ে এত বেশি সংখ্যক মানুষকে চাকরি ছাড়তে দেখা যায়নি। বিশেষজ্ঞদের মতে, চাকরিজীবীরা নতুন চাকরি পাওয়ার ব্যাপারে বেশ আস্থাশীল। চাকরি ছাড়লে নতুন চাকরি পাবেন এমন নিশ্চয়তা থেকেই তারা এই সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন।

নিউইয়র্কে বিভিন্ন সেক্টর মিলিয়ে প্রায় ৫০ লাখ শূন্যপদ রয়েছে। স্টেট গভর্নর ক্যাথি হোকুল এবং শহরের মেয়র এরিক অ্যাডামসও এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। লেবার ফোর্স বাড়ানোর জন্য তারা অ্যাসাইলাম প্রার্থীদের জরুরি ভিত্তিতে ওয়ার্ক পারমিট দেয়ার জন্য ফেডারেল সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বিভিন্ন রিক্রুটিং এজেন্সির তথ্য বলছে, নিউইয়র্কে জীবনযাত্রা ব্যয়বহুল। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ও ছেলেমেয়েদের ভালো পরিবেশ ও স্কুলে লেখাপড়ার করানোর ইচ্ছায় অনেকে নিউইয়র্ক ছেড়ে যেতে চাইছেন। সে কারণে এখানকার চাকরিও ছেড়ে দিচ্ছেন তারা। বেছে নিচ্ছেন টেক্সাস ও ফ্লোরিডার মতো জায়গাকে। অনেকে নিউইয়র্কের আলবেনি, বিংহ্যামটন, সিরাকুজ কিংবা রচেস্টরেও বসবাস করছেন। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২৪ সালের প্রথম তিন মাসে ৫ লাখ ১০ হাজার নিউইয়র্কবাসী চাকরি ছেড়েছেন। ২০২৩ সালের এই সময়ে এই সংখ্যা ছিল ছিল ৪ লাখের মতো।

সূত্র : আজকাল

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে