শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

পর্তুগালে প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন 

শহীদ আহমদ,পর্তুগাল প্রতিনিধি
  ০৩ জুন ২০২৪, ০৯:১২
ছবি-যায়যায়দিন

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার রাতে পর্তুগালের বন্দর নগরী পোর্তো বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত হয় এক দোয়া ও আলোচনা সভা ।

জিয়াউর রহমান ছিলেন বাংলার আকাশের ধ্রুবতারা। তিনি ছিলেন বাংলাদেশের গর্ব। ৪৩ বছরেও জিয়াউর রহমানের অনন্য নেতৃত্ব ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড মানুষ ভুলতে পারেনি।

তাই জিয়াউর রহমানকে হত্যার দিনটি ইতিহাসের কালো দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে গেছে। ৪৩ বছর পরেও দেশে-বিদেশে কোটি মানুষ তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে। এখনো সবাই কাঁদে জনতার জিয়া, চির অম্লান, চিরঞ্জীব।

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার রাতে পর্তুগালের বন্দর নগরী পোর্তো বিএনপির আয়োজিত দোয়া ও আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

পোর্তো বিএনপির আহবায়ক মামুন হাজারীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব তাজুল ইসলামের সঞ্চালনায় আরাফাত ও কাইয়ুম লিটনের যৌথ পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন পর্তুগাল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অলিউর রহমান,প্রধান বক্তা হিসেবে ছিলেন মির্জা কামাল হারুন, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সৈয়দ শরীফ নাজির, বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর সভাপতি শাহ আলম কাজল, কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব টিপু আহমেদ, শহীদুল ইসলাম খোকন, সেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক মুকিতুর রহমান সেলিম, বিএনপি নেতা আবদুর রহমান সাবু, ফ্রান্স সেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক গোলাম আজম।

সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন নাজমুল হাজারী।

আলোচনা সভার শুরুতে পোর্তো বিএনপি বিভিন্ন সময়ে দলের সাংগঠনিক দক্ষতার জন্য বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দেরকে শুভেচ্ছা স্বারক দিয়ে সন্মাননা করে পোর্তো বিএনপি।

আলোচনা সভার শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন পোর্তো বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক কাউয়ুম লিটন। এ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন পোর্তো বিএনপির স্বপন পাটোয়ারী, পর্তুগাল যুবদল নেতা শিহাব আহমেদ, আলমগীর হোসেন। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পোর্তো বিএনপি নেতা আজিজ আহমেদ, পিন্টু প্রধান, নুরুল ইসলাম বাদশা, মাসুম রহমান, আরাফাত হোসাইন, স্বপন পটোয়ারী, মহিন উদ্দিন, হোসাইন রনি, সাইফুল ইসলাম, মনির আহমেদ মোল্লা, মোহাম্মদ ফখরুউদ্দিন আহমেদ, সাহেদ হায়দার, ইউসুফ খান অর্ক, আনোয়ার হোসাইন, রুম্মান রহমান, শওকত ইসলাম, আরিফ হোসাইন প্রমুখ।

আলোচনা সভার শেষে শহীদ জিয়াউর রহমান ও ছেলে আরাফাত রহমান কোকো রুহের মাগফেরাত এবং বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মোঃ ইদ্রিস।

অনুষ্ঠানে পর্তুগাল বিএনপির সহ সভাপতি মামুন হাজারী বলেন আলোচনা সভায় বক্তরা বলেন একদলীয় শাসন ব্যবস্থা পরিবর্তন করে বহুদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রবর্তন করেছিলেন জিয়াউর রহমান। বিএনপি পুরোপুরিভাবে জিয়াউর রহমানের আদর্শ ও দর্শন বিশ্বাস করে। কিন্তু নিন্দুক যারা বিএনপির বিরুদ্ধে কথা বলে তাদের মুখে এই বক্তব্য যে বিএনপি জিয়াউর রহমানের আদর্শ থেকে দূরে সরে গেছে। আজকে দেশের রাজনীতির যে প্রেক্ষাপট, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবার জন্য শুধু দেশে নয় প্রবাস থেকেও এক ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে সমগ্র জাতিকে শহীদ জিয়াউর রহমানের যে দর্শন ও আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার শপথ করতে হবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে