সাক্ষাৎকার

নাটক-চলচ্চিত্র গল্পের প্রতি জোর দেওয়া উচিত

লাক্স-চ্যানেল আই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শোবিজে আগমন অভিনেত্রী প্রসূন আজাদের। নাটকে প্রশংসিত হয়ে অভিষেক ঘটে চলচ্চিত্রে। সেখানেও সাড়া ফেলেন তিনি। তার অভিনীত চলচ্চিত্রগুলো আলোচনায় জায়গা করে নেন। দীর্ঘ বিরতির পর সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে এই অভিনেত্রীর নতুন চলচ্চিত্র 'পদ্মাপুরাণ'। এই চলচ্চিত্র ও সমসাময়িক নানা বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন মাসুদুর রহমান
নাটক-চলচ্চিত্র গল্পের প্রতি জোর দেওয়া উচিত
প্রসূন আজাদ

প্রেক্ষাগৃহে 'পদ্মাপুরাণ'... প্রথম থেকেই সিনেমাটি আলোচনায়। এর প্রতি দর্শকের আগ্রহ আগে থেকেই। করোনার এই সময়েও সিনেমাটি ভালো সাড়া ফেলেছে। মুক্তির প্রথম দিনে সিনেমাটি দেখতে রাজধানীর একটি সিনেপেস্নক্সে গিয়েছিলাম। সেখানে দর্শকের প্রতিক্রিয়া দেখেছি। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও 'পদ্মাপুরাণ' নিয়ে ইতিবাচক সাড়া পড়েছে। গণমাধমেও প্রচুর প্রতিবেদন হয়েছে। চারিদিকে 'পদ্মাপুরাণ'-র প্রশংসা ভালো লাগছে। 'পদ্মাপুরাণ' টিমে.. পরিচালক রাশিদ পলাশের প্রথম সিনেমায় আমার কাজ করার কথা ছিল কিন্তু কোনো এক কারণে কাজটি আমার করা হয়নি। তখন পরিচালককে বলেছিলাম আমার দ্বিতীয় সিনেমায় কাজ করব। এরপর পরিচালক আমাকে 'পদ্মাপুরাণ'র জন্য প্রস্তাব করেন। গল্পটি আমার অত্যন্ত ভালো লাগে। চরিত্রটিও পছন্দ হয়। এখানে আমি কপিলা চরিত্রে অভিনয় করেছি। সুমিত করেছেন কুবের চরিত্রে। এই টিমের সবাই খুব ভালো করেছেন। কপিলা চরিত্রে... আমার কাছে প্রত্যেক সিনেমার প্রতিটি নতুন চরিত্রই চ্যালেঞ্জিং। তবে একটির চেয়ে আরেকটির গুরুত্ব কম-বেশি হতে পারে। 'পদ্মাপুরাণ'-এর শুটিং করতে গিয়ে আমাদের অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। আমি রোজার সময় প্রচন্ড গরমে শুটিং করেছি। আরও অনেক কষ্ট করতে হয়েছে কপিলা চরিত্রের জন্য। অভিনয় সত্তার যে ক্ষুধা সেটা কপিলা চরিত্রের মাধ্যমে পূর্ণ হয়েছে। চরিত্রটি করে আমি পরিতৃপ্ত হয়েছি। এই সময়ের 'পদ্মানদীর মাঝি'... অনেকেই 'পদ্মাপুরাণ'কে এই সময়ের 'পদ্মানদীর মাঝি' বলছেন। আসলে যারা দেখেছেন তারা বলতে পারবেন। 'পদ্মানদীর মাঝি' ও 'পদ্মাপুরাণ' সিনেমা দুটির গল্প ও পস্নট অন্য রকম। দুইটা দুই সময়ের। উপস্থাপনাও ভিন্ন। পাঁচ বছর পরে... ২০১৬ সালে 'মুসাফির' সিনেমা মুক্তির পর ২০২১ সালে 'পদ্মাপুরাণ'-এর মুক্তি। দীর্ঘ এই সময়ে আমি নিজেকে গুটিয়ে রাখিনি। এই সময়ে আমি চলচ্চিত্রের কাজেই ব্যস্ত থেকেছি। আমার তিনটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে-২০১৬ সালে অভিনয় করেছি 'মৃত্যপুরী', নুরুল আলম আতিকের পরিচালনায় 'মানুষের বাগান' এবং নিশীথ সূর্যের 'পায়রার চিঠি'। নাটকে নেই... চলচ্চিত্রের জন্য নাটক করা হয়নি। সর্বশেষ ২০১৮ সালে মোশাররফ করিমের সঙ্গে 'তকদির' নামে একটি নাটকে অভিনয় করেছিলাম। আসলে এখনকার নাটক ও চলচ্চিত্রের ভালো গল্পের খুব অভাব। এজন্য আমি কম কাজ করলেও মানহীন কাজের সঙ্গে আপস করতে রাজি নই। আমার হাতে কয়েকটি চিত্রনাট্য এসেছে সেগুলো দেখছি। ভালো না লাগলে কাজ করব না। অস্থির সময়ে... আমরা অস্থির একটা সময়ে রয়েছি। নাটক-চলচ্চিত্র সর্বত্রই অস্থিরতার মধ্যে চলছে। মান যাচাই না করে যেন কিছু একটা করতে হবে তাই করছি। আমাদের গল্পের প্রতি জোর দেওয়া উচিত।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে