রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
walton

‌‘পরীমণির অসংখ্য প্রেমিক, অনেকগুলো বর'

যাযাদি ডেস্ক
  ০২ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৩
-ফাইল ছবি

কি পরিচয়ে পরিচিত হতে চান অভিনেত্রী পরীমণি। তিনি সন্তানের মা, ছিলেন নায়ক রাজের স্ত্রী। অভিনয় জীবনে তিনি তেমন সফলতা পাননি। তবুও অভিনয় করে যাচ্ছে। তার নামের পাশে তেমন কোনো হিট ছবির তালিকা নেই। তবে জীবনে অনেক বির্তকে জড়িয়েছেন। অবশ্য এসব বির্তকের কারণেই তিনি বেশি আলোচিত।

রাজ-পরীমণির মিষ্টি কিছু ছবি এবং ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ঘুরছে। যেখানে তাদের দুজনকে খুব আন্তরিক মনে হচ্ছে। আসলে কি সত্যি নাকি বাস্তবতা ভিন্ন। পরীমণি কখনো ব্যক্তিগত, কখনো পেশাগত— কোনো না কোনো বিষয় নিয়ে বছর জুড়েই আলোচনায় থাকেন। শরিফুল রাজের সঙ্গে সংসার ভাঙার পর কাজে ফিরেছেন পরীমণি। সিঙ্গেল মাদার হিসেবে পুত্রকে বড় করছেন।

ভারতীয় বাংলা সিনেমায় অভিষেক হতে যাচ্ছে পরীমণির। ‘ফেলু বক্সী’ সিনেমার মাধ্যমে সিনেমার শুটিংয়ের ফাঁকে ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে ব্যক্তিগত জীবন ও কাজ নিয়ে দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। এ আলাপচারিতায় তিনি জানান, লোকে তাকে ‘বেয়াদপ’ তকমা দিয়েছেন। আর তিনিও বেয়াদপই থাকতে চান।

বাংলাদেশের সমাজ রক্ষণশীল। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে কাউকে পরোয়া না করার সাহস কোথায় পান? কথোপকথনে সঞ্চালকের প্রশ্নের জবাবে পরীমণি বলেন, ‘সবাই কারো না কারো কথা শুনে কাজ করে। কিন্তু ব্যক্তি স্বাধীনতা বলে তো একটা বস্তু আছে। তাই বলে কারো ক্ষতি করে কিছু করতে চাই না। আমাকে ঘোমটা দিয়ে চলতে হবে কিংবা মেয়ে বলে কোনো কাজ করতে পারব না।

এ ধরনের চাপিয়ে দেওয়া জিনিস ছোটবেলা থেকে মেনে নিতে পারিনি। আমি যখন এগুলো নিয়ে কথা বলি, লোকে ‘বেয়াদপ’ বলে। আমি আসলে এ রকম বেয়াদপ হতে চাই, এ রকমই বেয়াদপ থাকতে চাই। যদি নিজের মতো করে বাঁচতে চাইলে বেয়াদপ হতে হয়, আমার অসুবিধে নেই।’ পরীমণি বিতর্কিত, না কি সমালোচিত? এ প্রশ্নের উত্তরে পরীমণি বলেন, ‘আসলে লোকে আমাকে প্রচণ্ড ভুল বোঝে। আমাকে নিয়ে যা কিছু লেখা হয়, সে সব দেখে নিজেই বিভ্রান্ত হয়ে যাই— এটা কোন পরীমণি! আমার সম্পর্কে আমি এত উদ্ভট তথ্য পাই, ভাবি, এটা কি আমাকে নিয়ে বলছে?’

তার ভাষায়— ‘আমাকে নিয়ে যে ভুল ধারণা আছে, সেটা হলো, আমি নাকি শুটিং ফাঁসাই। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে লোকে বলে, পরীমণির অনেক প্রেমিক, অনেকগুলো বর। কিন্তু আমি জানতে চাই, তারা কোথায়? আমি নিজেও কথা বলতে গেলে বিব্রত বোধ করি। আগে একটা ধারণা ছিল, বিতর্কিত কিছু নিয়ে কথা বলা যাবে না। কিন্তু আমার মনে হয়, বিতর্কিত বিষয় নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ালে, সে ব্যাপারে বেশি কথা বলা প্রয়োজন। আমি আমার আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলেছি, যারা আমাকে নিয়ে ভুল তথ্য দিচ্ছেন, তাদের চিহ্নিত করে আইনি পদক্ষেপ নেব।’

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে