শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০
walton

মৌখিক ইজাব-কবুল ছাড়া বিয়ে শুদ্ধ হবে কি?

যাযাদি ডেস্ক
  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:৩৩

মানুষের জৈবিক চাহিদাপূরণ ও মানবিক প্রশান্তি লাভের প্রধান উপকরণ বিয়ে।দুজন সাক্ষীর উপস্থিতিতে এক পক্ষ প্রস্তাব দেন, আরেক পক্ষ গ্রহণ করেন বা কবুল বলেন - এভাবে বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বিয়ে শুদ্ধ হওয়ার জন্য দুইজন সাক্ষীর উপস্থিতিতে ইজাব কবুল পাওয়া যাওয়া শর্ত। কাজেই বর কনের জন্য দুইজন সাক্ষীর উপস্থিতিতে ইজাব কবুল মুখে বলা শর্ত। মুখে ইজাব কবুল না বলে শুধু কাবিননামায় সাইন করার দ্বারা বিয়ে শুদ্ধ হবে না।

বিয়ে আল্লাহ তাআলার বিশেষ নেয়ামত ও গুরুত্বপূর্ণ সুন্নত। চারিত্রিক অবক্ষয় রোধ, আদর্শ পরিবার গঠন প্রধান উপকরণ। এটি ইসলামি শরিয়তের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিধান।

لَا يَجُوزُ نِكَاحٌ، وَلَا طَلَاقٌ، وَلَا ارْتِجَاعٌ إِلَّا بِشَاهِدَيْنِ

‘রাসূল (সা.) বলেছেন, দুইজন সাক্ষী ছাড়া বিবাহ, তালাক ও ফিরিয়ে আনা বৈধ হবে না।’ (মুসান্নাফে আব্দুর রাযযাক, হাদিস: ১০২৫৪)

ইজাব ও কবুল হচ্ছে, বিয়ের রুকন। যা ছাড়া বিবাহ সংঘটিত হয় না। আর মুখে ইজাব কবুল না করে শুধু কাবিন নামায় সাইন করা দ্বারা ইজাব-কবুল হয় না। সুতরাং এখনো আপনারা স্বামী-স্ত্রী হন নি। (খুলাসাতুল ফাতাওয়া-২/৪৮, জাদীদ ফিক্বহী মাসায়েল-১/২৮৭-২৮৮)

রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেছেন, الْبَغَايَا اللاَّتِي يُنْكِحْنَ أَنْفُسَهُنَّ بِغَيْرِ بَيِّنَةٍ তারা হলো ব্যভিচারিনী যারা সাক্ষী ছাড়া নিজেরাই নিজেদের বিবাহ করে নেয়। (তিরমিযি ১১০৩)

কোনো বিয়ে যদি না জানার কারণে শুধু কাবিননামায় সাক্ষর করার মাধ্যমে হয়ে গিয়ে থাকে, তাহলে যত দ্রুত সম্ভব শরঈ পদ্ধতিতে বিয়ে করে নেওয়া কর্তব্য।

যাযাদি/ এম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে