বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

সাধারণত কোনো জঘন্য অপরাধে ডান্ডাবেড়ি পরানো হয় : মন্তব্য হাইকোর্টের

যাযাদি রিপোর্ট
  ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১১:১৫

জঙ্গি সম্পৃক্ততাসহ কোনো জঘন্য অপরাধে সাধারণত ডান্ডাবেড়ি পরানো হয় বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। যশোরে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার যুবদলের এক নেতাকে ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে চিকিৎসা নিতে দেখা গেছে প্রকাশিত খবর হাইকোর্টের নজরে আনা হলে বুধবার হাইকোর্ট এ কথা বলেন। ‘ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে হাসপাতালের মেঝেতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে যুবদল নেতাকে’ শীর্ষক প্রতিবেদনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন এদিন সকালে বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মো. আতাবুল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চের নজরে আনেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। তিনি আদালতের কাছে সুয়োমোটো (স্বতঃপ্রণোদিত) আদেশ প্রার্থনা করেন।

এদিকে, যুবদলের ওই নেতার নাম আমিনুর রহমান। তিনি যশোর জেলা যুবদলের সহসভাপতি ও সদর উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের আমদাবাদ কলেজের প্রভাষক। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডান্ডাবেড়ি পরা তার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঘুরছে। রাজনৈতিক মামলায় গ্রেপ্তার কলেজের একজন শিক্ষকের সঙ্গে দাগি আসামির মতো আচরণকে ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন’ বলছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা

এদিকে, এদিন আদালত বলেন, জঙ্গি সম্পৃক্ততাসহ হিনিয়াস ক্রাইমের (জঘন্য অপরাধের) ক্ষেত্রে সাধারণত অপরাধীকে ডান্ডাবেড়ি পরানো হয়। এ বিষয়ে উচ্চ আদালতের একাধিক সিদ্ধান্তও রয়েছে। কোন কোন ক্ষেত্রে ডান্ডাবেড়ি পরানো যাবে, সে বিষয়ে গাইডলাইন (নির্দেশিকা) আছে। আদালত আরও বলেন, ‘এ বিষয়ে সুয়োমোটো আদেশ দেব না। চাইলে রিট নিয়ে আসতে পারেন।’

এ সময় এ জে মোহাম্মদ আলীর সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী কায়সার কামাল, এম বদরুদ্দোজা, মো. রুহুল কুদ্দুস। পরে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এম বদরুদ্দোজা বলেন, ‘ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে যুবদল নেতাকে চিকিৎসার বিষয়টি নিয়ে রিট দায়েরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।’

এদিকে, গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, যশোরে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার যুবদলের এক নেতাকে ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। পেশায় কলেজশিক্ষক ওই যুবদল নেতা কারাগারে হৃদ্রোগে আক্রান্ত হলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। স্বজনদের অভিযোগ, হাসপাতালের শয্যায় ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। খাওয়ার সময়ও তার হাতকড়া খোলা হয়নি। এমনকি স্বজনদের সঙ্গে তাকে দেখা করতেও দেওয়া হয়নি।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে