​অতিরিক্ত রসুন খেলে কী হয়?

​অতিরিক্ত রসুন খেলে কী হয়?

রসুন যে আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী সে সম্পর্কে অনেকেই জানেন। রসুনকে বলা হয়ে থাকে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। এটি নানা রকম ব্যথা থেকে মুক্তি দেয়, কমায় সংক্রমণের ভয়ও। অসুখ-বিসুখ থেকে দূরে থাকতে রসুন খাওয়ার প্রচলন বহু পুরোনো। করোনাভাইরাস মহামারি দেখা দেওয়ার পর রসুন খাওয়ার প্রচলন আবার বেড়েছে। রক্ত পাতলা রাখতে সাহায্য করে রসুন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কাঁচা রসুন হার্টের নানা সমস্যাও দূরে রাখে। নিয়মিত রসুন খেলে নিয়ন্ত্রণে থাকে রক্তচাপ। তাই বলে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি রসুন খাওয়া কি উপকারী? চলুন জেনে নেওয়া যাক অতিরিক্ত রসুন খেলে কী হয়-

যকৃতের ক্ষতি করে

আমাদের শরীরের অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে থাকে যকৃত। এটি চর্বি ও প্রোটিন বিপাক, রক্ত পরিশোধন, শরীর থেকে অ্যামোনিয়া অপসারণ ইত্যাদি কাজ করে থাকে। কিন্তু আপনি যদি অতিরিক্ত রসুন খেয়ে থাকেন তাহলে এতে থাকা অ্যালিসিন নামক উপাদান যকৃতে বিষক্রিয়া তৈরি করতে পারে। তাই রসুন খাওয়ার ক্ষেত্রে সতর্ক হোন।

হতে পারে ডায়রিয়া

খালি পেটে রসুন খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে অনেক কথা বলা হয়। তবে সব সময় উপকারিতা না-ও মিলতে পারে। কারণ খালি পেটে রসুন খেলে কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। কারও কারও ক্ষেত্রে ডায়রিয়া হতে পারে। এর কারণ হলো রসুনে সালফার রয়েছে যা পেটে গ্যাস তৈরি করে। ফলে দেখা দিতে পারে ডায়রিয়া।

বুক জ্বালাপোড়া ও বমি

খালি পেটে রসুন খেলে অনেক সময় বুক জ্বালাপোড়া, বমি ও পেটে ব্যথা হতে পারে। এমনটাই বলা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটে প্রকাশিত এক গবেষণায়। হার্ভার্ড মেডিকাল স্কুলের এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, রসুনে থাকা কিছু উপাদান জিইআরডি বা গ্যাস্ট্রোয়েসোফাজিয়াল রিফ্লাক্স ডিজিজের অন্যতম কারণ হতে পারে।

গর্ভবতী নারীর জন্য ক্ষতিকর

হবু মায়ের জন্য রসুন খাওয়া নিরাপদ নয়। তাই গর্ভবতীদের রসুন খাওয়া থেকে বিরত থাকা উচিত। কারণ গর্ভাবস্থায় রসুন খেলে প্রসব বেদনা বেড়ে যেতে পারে। আবার যেসব মা শিশুকে বুকের দুধ খাওয়াচ্ছেন তাদেরও রসুন খাওয়া ঠিক নয়। কারণ এতে দুধের স্বাদ বদলে যেতে পারে।

মাথা ঘোরানো

অতিরিক্ত রসুন খেলে দেখা দিতে পারে মাথা ঘোরানোর মতো সমস্যা। কারণ রসুন বেশি খাওয়ার ফলে কমে যেতে পারে রক্তচাপ। আর নিম্ন রক্তচাপের বিভিন্ন উপসর্গ হিসেবে দেখা দিতে পারে দুর্বলতা, মাথা ঘোরানো বমি বা বমি বমি ভাব।

অতিরিক্ত ঘাম

অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা হলে রসুন খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে দেখতে পারেন। কারণ এর জন্য দায়ী হতে পারে রসুনও। বিভিন্ন ক্লিনিক্যাল স্টাডিতে দেখা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে রসুন খেতে থাকলে অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে