শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১

সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের সংবাদ সম্মেলন

গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি
  ১৬ মে ২০২৩, ২০:০০
আপডেট  : ১৬ মে ২০২৩, ২০:১৩
সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের সংবাদ সম্মেলন

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ দ্বিতীয় বারের মত স্থায়ী বহিষ্কারের আদেশ দিয়েছে। এ বিষয়ে গতকাল তার নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি বলেন, আমার বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ভুল বোঝানো হয়েছে। আমি দেশের বাইরে ছিলাম। এসে দেখি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হয়েছে।

যড়যন্ত্রের বিষয়ে দলের সিনিয়র নেতাদের জানিয়েছিলাম। তারা কেউ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমার বিষয়ে সত্যটা বলেছেন কিনা আমার জানা নেই। আমাকেও প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌছাতে দেয়া হয় নি। আমি ছয় বছর গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম।

ছাত্র জীবনে আমি ছাত্রলীগ পরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেছি। ২০১৮সালে আমি নৌকা প্রতিকে সিটি মেয়র পদে নির্বাচন করে বিজয়ী হই। তারপর তিন বছর মেয়রের দায়িত্ব পালন কালে অন্য জেলার নেতাকর্মীদের দিয়ে অভিযোগ জানিয়ে মেয়র পদটি স্থগিত করানো হয়েছে। আমার মা একজন সংগ্রামী নারী। তিনি স্বতন্ত্র মেয়র পদে টেবিল ঘড়ি মার্কায় নির্বাচন করছেন। আমি আমার মায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে মায়ের পাশে রয়েছি। নির্বাচনকে বাধা গ্রস্থ করতে পেশি শক্তি ব্যবহার করে কর্মীদের হুমকি দেয়া হচ্ছে।

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা এসেছেন। যারা টেবিল ঘড়ি মার্কা নিয়ে কাজ করছেন তাদেরকে প্রশাসনের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণায় বাধাগ্রস্থ করা হচ্ছে। এবার আওয়ামীলীগ থেকে আজমত উল্লা খানকে মনোনয়ন দিয়েছেন। তিনি আমার ক্ষতি (ষড়যন্ত্র) করার মধ্যে জড়িত ছিলেন।

তাই আমার মা নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন। আমি আমার মায়ের পাশে আছি। আজ আমার রাষ্ট্রের সকল ক্ষমতা চলে গেছে, নেতাকর্মীরা ও চলে গেছে কিন্তু আমার মা আমার পাশে আছেন। আমিতো একজন আওয়ামী লীগের সমর্থক। আমাকে বহিষ্কার করতে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতাকর্মীর কেন প্রয়োজন? পূর্বে আমার দলীয় পথ ছিল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে ছিলাম আমাকে দল থেকে এভাবে বের করে দেয়াটা দলের জন্য কতটুকু ভালো হয়েছে। আমার মা নির্বাচন করছেন,মা আমাকে তার পাশে থাকতে বলেছেন।

আমি যদি মায়ের পাশে না থাকি তাহলে রক্তের সাথে বেইমানি করা হয়। মা ও গাজীপুর মহানগীর বাসিন্দাদের জন্য যদি জেল ও জীবন দিতে হয় তবুও আমি আমার মায়ের পাশে থেকে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাব।

যাযাদি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে