৬ দিন পর পুঁজিবাজারে পতন

৬ দিন পর পুঁজিবাজারে পতন

শেয়ার বিক্রির চাপে টানা ৬ কার্যদিবস পর দেশের পুঁজিবাজারের সূচক ও বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে। তবে সূচক ও বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার দাম কমার দিনেও বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, টানা ছয়দিন পর বস্ত্র, বিমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি এবার ব্যাংক খাতের শেয়ারের বিক্রি করছেন বিনিয়োগকারীরা। বর্তমান দামে শেয়ার বিক্রি করে মুনাফা তুলে নিচ্ছেন তারা।

আর তাতে ঈদুল আজহা পরবর্তী দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার (২৬ জুলাই) দেশের পুঁজিবাজারে সূচক কমেছে। এদিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ২০ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমেছে ১০৪ পয়েন্ট। সূচকের পাশাপাশি বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দামও কমেছে। বাজারের এই অবস্থানকে মূল্যসংশোধন বলে মনে করছেন তারা।

ডিএসইর তথ্য মতে, সোমবার সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন শুরু হয়। ব্যাংক, বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের ক্রেতাদের তুলনায় বিক্রেতা বেশি থাকায়। রোববারের (২৫ জুলাই) চেয়ে কম দামে শেয়ার বিক্রি হয়েছে।

আর তাতে দিন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ২০ দশমিক ১৮ পয়েন্ট কমে ছয় হাজার ৪০৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচকের পাশাপাশি শরিয়াহ্ সূচক তিন পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট কমেছে। এর আগের গত ১২ জুলাই পুঁজিবাজারে সূচক পতন হয়েছিল।

এদিন ডিএসইতে মোট ৩৭৪ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের মোট এক হাজার ৪২৮ কোটি ৯৪ লাখ ৯৮ টাকার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ব্লক মার্কেটে লেনদেন হয়েছে ৩৯ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৩৫৪ কোটি ৭০ লাখ ২ টাকা। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে।

লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে শেয়ারের দাম বেড়েছে ১১১টির, কমেছে ২২৯ এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির। বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় এদিন ডিএসইর বাজার মূলধন ৬৮৬ কোটি ১০ লাখ ৮৪ হাজার টাকা কমে পাঁচ লাখ ৩৪ হাজার ৩৪৪ কোটি ৫৬ লাখ ৮৩ হাজার টাকায় দাঁড়িয়েছে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে শীর্ষে ছিল বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার লিমিটেড। এরপর ক্রমান্বয়ে ছিল সাইফ পাওয়ার, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো, বেক্সিমকো লিমিটেড, ফুয়াং ফুড, জিপিএইচ ইস্পাত, অ্যাকটিভ ফাইন, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, এসএস স্টিল এবং ওরিয়ন ফার্মাসিটিউক্যালস লিমিটেড।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৬১৬ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে ৩০৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১৫৫টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টি। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৫৯ কোটি ৯৩ লাখ ৩৯ হাজার ৭০ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪০ কোটি ৭৮ লাখ ৭১ হাজার ৭০০ টাকা।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে