• বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১ ফাল্গুন ১৪২৭

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৩ মৃতু্য, শনাক্ত ৭৬২

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৩ মৃতু্য, শনাক্ত ৭৬২

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ১৩ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে পুরুষ ৯ ও নারী চারজন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১২ ও বাড়িতে একজন মারা যান। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল সাত হাজার ৮৬২ জনে।

শুক্রবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৯টি ল্যাবরেটরিতে ১৩ হাজার ৬৫২টি নমুনা সংগ্রহ ও ১৩ হাজার ৬৭৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৩৪ লাখ ৩১ হাজার ৭৯২টি। একই সময়ে

নমুনা পরীক্ষায় রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭৬২ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৫ লাখ ২৬ হাজার ৪৮৫ জন।

এদিকে, রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৭১৮ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার পাঁচ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৩৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৪৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃতু্যর হার ১ দশমিক ৪৯ শতাংশ। মৃত সাত হাজার ৮৬২ জনের মধ্যে পুরুষ ৫ হাজার ৯৬৩ (৭৫ দশমিক ৮৫ শতাংশ )এবং নারী এক হাজার ৮৯৯ জন (২৪ দশমিক ১৫ শতাংশ)।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৩ জনের ত্রিশোর্ধ্ব দুইজন, চলিস্নশোর্ধ্ব একজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব দুইজন এবং ষাটোর্ধ্ব আটজন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৩ জনের মধ্যে ঢাকায় ১০ জন, রাজশাহীতে একজন, খুলনায় একজন এবং রংপুরে একজন রয়েছেন।

ডা. নাসিমা সুলতানা আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৯৬ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১০১ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৯৭ হাজার ৯৯০ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৮৬ হাজার ৮০২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১১ হাজার ১৮৮ জন।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ে। ২০ ডিসেম্বর তা ৫ লাখ পেরিয়ে যায়। এর মধ্যে গত ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃতু্যর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ২৯ ডিসেম্বর তা সাড়ে সাত হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃতু্যর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃতু্য ছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে