ইসলামপুরে ইটভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় ফল ফসল নষ্ট

ইসলামপুরে ইটভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় ফল ফসল নষ্ট

জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় ইটভাটার বিষাক্ত কালো ধোঁয়া, মাটি ও বালুর গাড়ি চলাচলে ধুলোবালিতে ফল ফসল নষ্টসহ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে জনজীবন। অন্যদিকে ভাটাগুলোর ইট তৈরিতে ফসলিজমির উপরিভাগ মাটি কেটে নেওয়ার ফলে জমি ক্ষতির মুখে পড়ছে।

জানা গেছে, নীতিমালা লঙ্ঘন করে লোকালয় ও কৃষিজমিতে উপজেলার ঢেংগারগড় বটতলা সংলগ্ন মেসার্স এমআরবি ব্রিকস, নবাব ব্রিকস, গঙ্গাপাড়া গ্রামে জনবসতিতে মিলি ব্রিকস, পাথর্শী ইউনিয়নের মোজাআটা, পশ্চিম মোজাআটা, মুকশিমলা, রৌহারকান্দা গ্রামের ফসলি ধানিজমিতে, পৌরসভা ভবনসংলগ্ন সওদাগর ব্রিকস, দক্ষিণ দরিয়াবাদ গ্রামসংলগ্ন হাতিজা গ্রাম, চর গোয়ালীনি ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম সংলগ্ন ব্রিকস ও বুরুঙ্গীবিল এলাকায় ইটভাটায় দীর্ঘদিন ধরে পাকা চিমনি নির্মাণ করে ইট উৎপাদন চলছে। ইট উৎপাদনে ফসলিজমির মাটির উপরিভাগ কেটে নেওয়া অব্যাহত থাকলে জমিগুলো বন্ধ্যা জমিতে পরিণত হওয়াসহ বর্ষা মৌসুমে কৃত্রিম জলাবদ্ধতায় পরিণত হবে। এই জমিগুলো চলতি রবি মৌসুমে সরিষা চাষ না করায় তা পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। গাছ ও কাঠ পুড়িয়ে পরিবেশের ক্ষতি সাধনসহ কালো ধোঁয়া আর ধুলোবালুর বিরূপ প্রভাবে জমির আবাদ নষ্ট হলেও সংশ্লিষ্ট বিভাগ নীরব রয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, কালোধোঁয়া ও ভাটার গাড়ি প্রতিনিয়ত মাটি ও বালু নিয়ে বেপরোয়া চলাচলে সড়কগুলোয় পথচারীদের আতঙ্কে বেড়েই চলেছে। খোলামেলাভাবে মাটি ও বালির গাড়িগুলো যাতায়াতে ধুলো-বালুর বিরূপ প্রভাবে মানুষের বিভিন্ন রোগব্যাধিসহ অনেকের চোখের সমস্যা দেখা দিয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রেজুয়ানূল ইসলাম জানান, 'ফসলিজমির মাঠে ইটভাটার ফলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। বিষয়গুলো একাধিক বার জেনেছি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।' উপজলো নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম মাজহারুল ইসলাম জানান, দ্রম্নতই অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে