শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

আনোয়ারায় স্কুল ভবন ঘেঁষে বিদু্যৎ সঞ্চালন লাইন!

ম আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
  ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০:০০
চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার বটতলী শাহ মোহছেন আউলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষ ঘেঁষেই 'হাই ভোল্টেজ' বিদু্যৎ সঞ্চালন লাইন। ঝুলন্ত বৈদু্যতিক তারে স্কুল ভবনগুলো যেন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। সঞ্চালন লাইনে বিদু্যৎস্পৃষ্ট হয়ে আহতও হয়েছে এক শিক্ষার্থী। ৩৩ হাজার ভোল্টেজের খোলা তারের এই লাইনের কারণে জীবনের ঝুঁকিতে রয়েছে বিদ্যালয়ে দুই হাজার শিক্ষার্থী। স্কুল কর্তৃপক্ষ বলছে, এই লাইনের বিষয়ে বিদু্যৎ কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। আর উপজেলা বিদু্যৎ কর্তৃপক্ষ বলছে, স্থাপনা নির্মাণের ক্ষেত্রে বিদু্যৎ লাইনের অন্তত ১০ ফুট ফাঁকা রাখার নিয়ম থাকলেও নির্মাণকারীরা তা মানছেন না। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের তিনতলা ভবনের জানালা থেকে মাত্র দুই ফুট ফাঁকায় ৩৩ হাজার ভোল্টেজের খোলা তার। জানালার পাশে শিক্ষার্থীরা। বিদু্যৎ লাইনের কথা জিজ্ঞাসা করতেই এক শিক্ষার্থী জানায়, কয়েক মাস আগে ভবনের ছাদে এক শিক্ষার্থী বিদু্যৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত হয়। জানালার পাশে গেলেই ভয় লাগে। বিদু্যৎ লাইনটা সরানোর দাবিও করে তারা। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, স্কুল ভবনের তিনতলার জানালা ঘেঁষে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বিদু্যৎ লাইনে কয়েক মাস আগে এক শিক্ষার্থী আহতও হয়েছে। বিষয়টি উপজেলা বিদু্যৎ বিভাগে লিখিতভাবে জানানো হলেও এখনো কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। বিদু্যতের মূল স্টেশন থেকে আসা ৩৩ হাজার কেভির উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন এই বৈদু্যতিক তার না সরালে বড় ধরনের দুর্ঘটনাসহ প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে। এসব বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা পলস্নীবিদু্যৎ সমিতির এজিএম জানান, স্থাপনা নির্মাণের ক্ষেত্রে বিদু্যৎ লাইনের অন্তত ১০ ফুট ফাঁকা রাখার নিয়ম থাকলেও নির্মাণকারীরা তা মানছেন না। এই মুহূর্তে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে বিদু্যৎ লাইনে সেফটি কভার লাগানোর ব্যবস্থা করা হবে।
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে