মাদারীপুরের কালকিনি

মেয়রপ্রার্থীকে তুলে নেওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি

মেয়রপ্রার্থীকে তুলে নেওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি

মাদারীপুরের কালকিনিতে নির্বাচনী মাঠ থেকে স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী মশিউর রহমান সবুজকে পুলিশের গাড়িতে তুলে ঢাকা নেওয়ার ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মোরশেদ আলমের স্বাক্ষরিত এক স্মারকপত্রে এই কমিটি গঠন করা। গত ১৮ ফেব্রম্নয়ারি তদন্ত কমিটি গঠন হলেও ২২ ফেব্রম্নয়ারি কাগজ হাতে পান সংশ্লিষ্টরা। বিষয়টি প্রথমে গোপন থাকলেও ২৪ ফেব্রম্নয়ারি তদন্ত কমিটি গঠনের

বিষয়টি জানতে পারে সংবাদকর্মীরা।

কমিটির প্রধান ও আহ্বায়ক হলেন নির্বাচন কমিশনের জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক হুমায়ুন কবির। এ ছাড়া বাকি দুই সদস্য হলেন নির্বাচন কমিশনের শৃঙ্খলা ও আপিল বিভাগের উপসচিব খোরশেদ আলম, আইন-বিষয়ক-২ শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব মো. আবু ইব্রাহীম। তদন্ত কমিটিকে পরবর্তী সাত কার্যদিবসের মধ্যে সরেজমিন পরিদর্শন শেষে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী নিখোঁজের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট পুলিশের ভূমিকা, দোষী ব্যক্তিকে চিহ্নিতকরণ, প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটন, ভবিষ্যতে এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে; এ ব্যাপারে সুপারিশের বিষয়ে তদন্তে প্রাধান্য দিতে বলা হয়েছে।

গত ৬ ফেব্রম্নয়ারি দুপুর ২টার দিকে কালকিনি পৌর এলাকার পালপাড়ায় নির্বাচনী প্রচারণা থেকে সবুজকে কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ নাছির উদ্দিন গাড়িতে করে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসানের কাছে নিয়ে আসেন। পরে পুলিশ সুপারের গাড়িতে করে সবুজকে ঢাকায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের এক নেতার কাছে নিয়ে যান। এ সময় সবুজের মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া গেলে বিষয়টি নিখোঁজ দাবি করে বিক্ষোভ করে কালকিনি থানা ঘেরাও করেন সবুজের কর্মী-সমর্থকরা। পরে নৌকা প্রার্থী এসএম হানিফের সমর্থকদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সবুজ নিখোঁজের ১৪ ঘণ্টা পর ওইদিন রাত ৪টার দিকে নিজ বাড়িতে ফিরেন তিনি। বিষয়টি টেলিভিশন ও একাধিক জাতীয় দৈনিকে বিভিন্ন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত। ঘটনাটি নির্বাচন কমিশনের নজরে এলে গঠন করা হয় এই তদন্ত কমিটি।

উলেস্নখ্য, গত ১৪ ফেব্রম্নয়ারি কালকিনি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। স্বতন্ত্র প্রার্থী নিখোঁজের ঘটনায় এই পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত রেখেছে নির্বাচন কমিশন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, কালকিনি পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন স্থগিতের বিষয়ে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নির্বাচন কমিশন। এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি আমরা হাতে পেয়েছি। তদন্ত কমিটির কর্মকর্তারা কবে মাদারীপুরে আসবে, সেটা এখনো আমাদের জানান হয়নি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে