চট্টগ্রামসহ ৫ জেলায় ১৬ মৃতু্য

চট্টগ্রামসহ ৫ জেলায় ১৬ মৃতু্য

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতু্য এবং সংক্রমণ দুটোই বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ৪, ফরিদপুরে ৩, নওগাঁয় ২, শেরপুরে ১ জনের মৃতু্য হয়েছে। এছাড়া করোনা উপসর্গে সাতক্ষীরায় ৪ এবং নাটোরে ২ জন মারা গেছেন।

আমাদের চট্টগ্রাম অফিস জানায়, করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় চারজন মারা গেছেন। একই সময়ে আরও ২২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৫ হাজার ৬৮৮ জন। অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৬৫৪ জন। ১

সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১টি ল্যাবে এক হাজার ১৫১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ২২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। নতুন করোনা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ১৩৪ জন চট্টগ্রাম নগরীর, বাকি ৮৮ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

ফরিদপুর প্রতিনিধি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে তিনজন। এ সময় শনাক্ত হয়েছে ৯৪ জন।

ফরিদপুর সিভিল সার্জন ডা. ছিদ্দীকুর রহমান জানান, করোনায় জেলায় এ পর্যন্ত মোট মৃতু্য হয়েছে ১৯৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় পিসিআর ল্যাবের ৩৩২টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ হয়েছে ৯৪ জন। জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ১১ হাজার ৩২৮ জন। আর সুস্থ হয়েছে ১০ হাজার ৪৫৭ জন।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, মোট নমুনা পরীক্ষার শনাক্তের হার ২১%, মৃতু্যর হার ১.৭০% এবং সুস্থতার হার ৯২.৩১%।

নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, নওগাঁয় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও দু'জনের মৃতু্য হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা ৬০। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে দু'জনের মৃতু্য হয়।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৫৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। শুক্রবার দুপুরে নওগাঁর সিভিল সার্জন এ বি এম আবু হানিফ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় সদর হাসপাতালে ২২২ জনের অ্যান্টিজেন টেস্ট ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ৩১ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল আসে। মোট ২৫৩ ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষা করে ৫৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৯২ শতাংশ।

শেরপুর প্রতিনিধি জানান, শেরপুরে একদিনে করোনাভাইরাসে এক নারীর মৃতু্য হয়েছে এবং নতুন করে ৪৯ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ফারজানা বেগম নামে ৩১ বছর বয়সি ওই নারীর মৃতু্য হয় বলে শেরপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোবারক হোসেন জানান।

এ নিয়ে এ জেলায় করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা ১৯ জনে দাঁড়িয়েছে।

সিভিল সার্জন অফিস থেকে শুক্রবার সকালে দেওয়া জেলার কোভিড-১৯ সংক্রান্ত স্বাস্থ্য বুলেটিনে বলা হয়েছে, আগের দিন জেলায় ২১৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৯ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে শেরপুর সদরে ৪৮ জন এবং নকলা উপজেলায় ১ জন রয়েছেন। সব মিলিয়ে এ জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা ১ হাজার ২ জনে দাঁড়াল।

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরায় ৪ জনের মৃতু্য হয়েছে। এছাড়া ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৮৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪৫ দশমিক ২১ শতাংশ। সর্বশেষ ৪৭ দশমিক ৩১ শতাংশ থেকে নেমে তা দাঁড়িয়েছে ৪৫ দশমিক ২১ শতাংশে। করোনার শুরু থেকে এ পর্যন্ত সাতক্ষীরায় ২ হাজার ৭৮৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. জয়ন্ত সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান, বর্তমানে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে মোট ৪৯ জন করোনা পজিটিভ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নাটোর প্রতিনিধি জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে নাটোর সদর হাসপাতালে মারা গেছেন এক নারী ও একজন পুরুষ। সিভিল সার্জন ডা. মিজানুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার ২৪ ঘণ্টায় নাটোরে ১২৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ৬৬ জন আক্রান্ত ছিল। সংক্রমণের হার ছিল ৫১.৫০ শতাংশ। শহর এলাকায় ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৮ জনের করোনা পজিটিভ রেজাল্ট পাওয়া গিয়েছিল। এতে করে নাটোর শহর এলাকায় সংক্রমণের হার ছিল ৭৬ শতাংশ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে