বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

'স্পিন উইকেটে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়া ভালো'

ক্রীড়া প্রতিবেদক
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০০:০০
মিচেল স্যান্টনার

এ ধরনের উইকেট কি সমর্থন করো? সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নের মুখে পড়ে মিচেল স্যান্টনার হেসে উঠলেন। এই হাসির অর্থ তিনি স্পিনার, এমন উইকেট তার জন্যও আদর্শ। হাসির পর অবশ্য নিজেদের অবস্থানও পরিষ্কার করেছেন স্যান্টনার, 'এটা স্পিনিং উইকেট। বিশ্বের এই প্রান্তে আসলে আমাদের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়। এটা চমৎকার। এখানে আসা এবং এ ধরনের উইকেটের স্পিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়া আমাদের জন্য ভালো। যখন আমরা দেশে যাব, আমরা তৈরি করব সবুজ উইকেট। যেখানে বলের সিম থাকবে, সুইং থাকব।'

বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে প্রথম দিন শেষে উইকেট নিয়ে এমন মন্তব্য করেন কিউই স্পিনার স্যান্টনার। প্রথম দিনে দুই দলের ১৫ উইকেট পড়ে। বাংলাদেশ টস জিতে আগে ব্যাটিং করে ১৭২ রানে অলআউট হয়। দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নেমে ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে কিউইরা। এরপর আলোক স্বল্পতার কারণে ৮.২ ওভার কমে দিনের খেলা শেষ হয়ে যায়।

নিজেদের অবস্থান নড়বড়ে হলেও আত্মবিশ্বাসী স্যান্টনার। তাদের নজর ছোট জুটির দিকে, 'আমরা জানি এটা চ্যালেঞ্জিং হতে যাচ্ছে। আমরা একটু আগেই আলোচনা করছিলাম, জুটি গড়ার চেষ্টার বিষয়ে। যেই হোক এটা ৮০ বা ৯০ রানের ব্যাপার নয়, দ্রম্নত ৩০ রানের ইনিংসও হতে পারে। আগামী দিনগুলোতে দারুণ লড়াই হতে যাচ্ছে, সন্দেহ নেই।'

নিজেদের প্রথম ইনিংসে খেলতে নেমে ড্যারেল মিচেল ১২ ও গেস্নন ফিলিপস ৫ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। এর আগে সর্বোচ্চ ১৩ রান করেন কেন উইলিয়ামসন। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ২ উইকেট নেন তাইজুল ইসলাম।

স্যান্টনারের নজর এখন জুটি গড়ার দিকে, 'যারা উইকেটে আছে তাদের এখন জুটি গড়ার চেষ্টা করতে হবে। এটা ১০০ বা ২০০ রানের জুটি নয়, হতে পারে ৫০ রানের। এখন যতক্ষণ লড়াই করা যায় সেটাই চেষ্টা করতে হবে। আর তারা যদি বাজে বল করে সেটা কাজে লাগাতে হবে। প্রত্যেকের পরিকল্পনা আছে স্পিনারদের ওপর চাপ

ফিরিয়ে দেওয়ার।'

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে