টঙ্গিবাড়ীতে পদ্মার ভাঙনে বিলীন ঘরবাড়ি, দিশেহারা মানুষ

টঙ্গিবাড়ীতে পদ্মার ভাঙনে বিলীন ঘরবাড়ি, দিশেহারা মানুষ

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার হাসাইল পদ্মার শাখা নদীর প্রবল স্রোতে নদী সংলগ্ন এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে, এতে ওই এলাকার বেশ কিছু ঘরবাড়ি সহ ফসলি জমি বিলীন হয়ে গেছে। তাই দিশেহারা হয়ে আতঙ্কে দিন কাটছে ওই এলাকার মানুষদের।

সরজমিনে উপজেলার হাসাইল বানারী ইউনিয়নের পূর্ব হাসাইলে গিয়ে দেখা যায় পানি উন্নয়ন বোর্ড এর উদ্যোগে ভাঙন কবলিত এলাকায় ট্রলারে করে বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত কয়েকদিনে পদ্মার তীব্র স্রোতের ঘরবাড়ি ভেঙে নদীতে ডুবে যায়। এলাকাবাসীর সহায়তায় ৬ টি ঘর উদ্ধার হলেও ঘরে থাকা আসবাবপত্র কিছুই উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলেও জানা গেছে। দেখাগেছে ওই এলাকার স্কুল, মসজিদসহ প্রায় ৮০ থেকে ৯০ টির মত ঘরবাড়ি হুমকিতে রয়েছে। আতঙ্কে দিশেহারা হয়ে দিন কাটাচ্ছে পদ্মার পাড়ের বেশ কিছু পরিবার।

গৃহহারা পরিবারগুলোর দাবি অতিদ্রুত নদীর তীরে বাঁধ নির্মাণ এবং তাদের দ্রুত সাহায্য সহযোগিতা করার।

পদ্মায় বিলিন হওয়া ঘরের মালিক আঃ করিম শেখ(৫৫) জানান, পদ্মা নদীর তীব্র স্রোতে নদীর গর্ভে মুহূর্তেই আমার ৩ টি ঘর ভেঙে নদীতে তলীয়ে গেছে। এলাকাবাসীর সহযোগীতায় ঘর উদ্ধার করতে পারলেও আমার ঘরে থাকা টাকা বাকি জিনিসপত্র কিছুই উদ্ধার হয়নি, কারন মুহুর্তের মধ্যেই ঘরগুলো ভেঙে নদীতে পরে গেছে।

একই এলাকার আসমা বেগম (৩৪) জানান, বর্ষা এলেই আমরা ভাঙন আতঙ্কে থাকি, গতকাল হঠাৎ করে কিছু বুঝার আগেই ঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায় আমার ঘর, এলাকাবাসীর সহায়তায় দড়ি বেঁধে ঘরটি উদ্ধার করেছি আর কিছুই আটকাতে পারিনি।

হাসাইল বানারী ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হাওলাদার জানান, গতকাল ১১ টার দিকে খবর পাই নদী ভাঙ্গন শুরু হয়েছে বেশ কয়েকটি ঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায় এলাকার লোকজনের সহায়তায় ৬ টি উদ্ধার করতে পারলেও বাকি দুইটি ঘর উদ্ধার করতে পারেনি। ইতিমধ্যে আমি এমপি মহোদয় এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে জানিয়েছি তারা এখন ব্যবস্থা নিবে বলে আশা করছি।

এ বিষয়ে টঙ্গিবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা পারভিন এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমরা ইতোমধ্যে ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছি, নদীগর্ভে ঘরবাড়ী বিলিন হওয়াদের সহ ওই এলাকার আরও ১৮ টি পরিবারের মধ্যে টঙ্গিবাড়ী উপজেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে ত্রান বিতরন করা হয়।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে