বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১

মুক্তাগাছায় গ্রাউস নামে এক এনজিও’র বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠছে গ্রামবাসী

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
  ০৬ মে ২০২৩, ১৯:২০
মুক্তাগাছায় গ্রাউস নামে এক এনজিও’র বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠছে গ্রামবাসী

গ্রাম উন্নয়ন সংস্থা (গ্রাউস) নামে এক স্থানীয় এনজিও’র বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠছে গ্রামবাসী। এই এনজি’ও নির্বাহী পরিচালকের দূর্নীতি ও মিথ্যা মামলায় অত্যচারে অতিষ্ট হয়ে পথে নেমেছে গ্রাহক ও গ্রামবাসী।

শুক্রবার বিকেলে মুক্তাগাছার স্থানীয় বটতলা বাজারে গ্রাউস অফিসের সামনে শত শত গ্রাহক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছির করে এনজিও’টি বন্ধের দাবি জানান।

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার দুল্লার বটতলা বাজারে ২০০৫ সাালে গ্রাম উন্নয়ন সংস্থা নামে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠিত হয়। জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তর থেকে এ এনজিওটি ম-১০৪৫৮ নামে নিবন্ধিত হয়। এর নির্বাহী পরিচালক হিসেবে সংস্থাটি পরিচালনা করে আসছেন সাইয়েদুজ্জামান খোকন। এর গ্রাহক সংখ্যা রয়েছে প্রায় ২ হাজার।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে গ্রাহকদের কাছ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র আটকে রেখে চড়া সুদ আদায় করার অভিযোগ রয়েছে এনজিওটির বিরুদ্ধে। গ্রাহকদের অফিসে আটকে রেখে তাদের মিথ্যা মামলা দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করারও অভিযোগ রয়েছে এ এনজিওটির নির্বাহী পরিচালকের বিরুদ্ধে।

এ সব দূর্নীতি ও অনিয়মের প্রতিবাদ করায় সংশ্লিষ্ঠ এলাকার ইউপি সদস্য আব্দুল হান্নানকে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করায় ফুঁসে উঠছে গ্রাহক ও এলাকাবাসী। এর প্রতিবাদে কয়েকটি গ্রামের শত শত ভুক্তভোগি গ্রাহক শুক্রবার বিকেলে এনজিওটির সামনে মানববন্ধন করেন। পরে তারা বটতলা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করে এনজিওটি বন্ধের দাবিসহ নির্বাহী পরিচালক সাইয়েদুজ্জামান খোকনের বিচার দাবি করেন।

উপজেলার চকপাড়া গ্রামের বাসিন্দা গাজী মিয়া বলেন, অফিসে আটকে রেখে গ্রাহকদের অত্যাচারসহ নানা অখিযোগ রয়েছে এ এনজিওটির বিরদ্ধে। এর প্রতিবাদ করায় তাদের জনপ্রিয় ইউপি সদস্য আব্দুল হান্নানকে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করানো হয়েছে। তারা এ এনজিওটি বন্ধসহ পরিচালকের বিচার দাবি জানিয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।

ইউপি সদস্য ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হান্নান বলেন, গ্রাম উন্নয়ন সংস্থাটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে চড়া সুদের ব্যবসা করে আসছে। মানুষের আইডি কার্ড জমা রেখে, মোটর সাইকেল আটকে রেখে ও গ্রাহকদের অফিসে তালাবদ্ধ করে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করাসহ নানা অনিয়ম রয়েছে এ এনজিওটির বিরুদ্ধে। এ সব ঘটনার প্রতিবাদ করায় তাকেও মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ সব অভিযোগ অস্বীকার করে গ্রাম উন্নয়ন সংস্থা (গ্রাউস) এর নির্বাহী পরিচালক সাইয়েদুজ্জামান খোকন বলেন, এলাকার কিছু লোক তাদের স্বার্থ আদায় হয়নি বলে তারা তার বিরুদ্ধে লেগেছেন। তিনি বলেন, এলাকায় অসংথ্য অসহায় মানুষকে তার এনজিও থেকে বিভিন্ন সময় সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে মুক্তাগাছা থানার ওসি আব্দুল মজিদ বলেন, এনজিওর নির্বাহী পরিচালকের মামলার প্রেক্ষিতে ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম বলেন, সমাজসেবা অধিদপ্তরের কোনো নিবন্ধনকৃত সংস্থার নামে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত করা হয়। তদন্তে সত্যতা পাওয়া গেলে ওই সব সংস্থার নিবন্ধন বাতিলসহ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এই সংস্থার নামে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যাযাদি/ এম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে