শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

কক্সবাজারে ৪ মনোনয়ন বাতিল, বৈধ ১০

কক্সবাজার প্রতিনিধি
  ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:১৪

কক্সবাজারের ৪টি আসনের মনোনযন বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।

সোমবার সকালে কক্সবাজার ৩ ও ৪ আসনের মনোনযনপত্র বাছাই করা হয। এই দুই আসন থেকে কক্সবাজার জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর ও সাবেক সাংসদ আবদুর রহমান বদির কথিত পুত্র মো ইসহাকসহ ৪ জনের মনোযন বাতিল করা হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মুহম্মদ শাহীন ইমরান মনোনযনপত্র যাচাইবাছাই করে এ ঘোষণা দেন।

কক্সবাজার রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয সুত্র জানায়, কক্সবাজার৩ আসনের সংসদ সদস্য ও আওযামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সাইমুম সরওযার কমলের মনোনযন বৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। এছাডা জাতীয পার্টির মোহাম্মদ তারেক, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির আব্দুল আওযাল মামুন এবং বাংলাদেশ ন্যাশনাল ফ্রন্টের মোহাম্মদ ইব্রাহিমের মনোনযনপত্রও বৈধ ঘোষণা করা হয। এই আসনে মনোনযনপত্র জমা দিযেছিলো ৬ জন। তাদের মধ্যে ন্যাশনাল আওযামী পার্টির শামীম আহসানের মনোনযন স্থগিত এবং স্বতন্ত্র মোঃ আবদুল মজিদের মনোনযনপত্র বাতিল করা হয।

আওয়ামীলীগের প্রার্থী সাইমুম সরওযার কমল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমাকে আবারো কক্সবাজার ৩ আসন থেকে মনোনয়ন দেয়ার জন্য। প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারের মানুষকে দেখতে পারেন বলেইএখানে এত উন্নযনে হচ্ছে। আরো অনেক উন্নয়ন হবে এই কক্সবাজারে। তাই উন্নযনের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায ভোট দিন। এছাডা কক্সবাজার ৪ আসনে মনোযন জমা দিয়েছিলেন ৯ জন। তারমধ্যে বৈধ ঘোষণা করা হযেেছ ৬ জনকে। তাঁরা হলেন, আওযামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান সাংসদ শাহীন আকতার বদি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ফরিদ আলম, জাতীয পার্টির নুরুল ইসলাম ভুট্টো, তৃণমূল বিএনপির মুজিবুল হক মুজিব, বাংলাদেশ কনগ্রেসের মোহাম্মদ ইসমাঈল ও ইসলামী ঐক্যজোটের মুফতি ওসমান গণি চৌধুরী।

এই আসন থেকে ৩ জনের মনোনযন বাতিল করা হযেেছ। তাঁরা হলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, টেকনাফ উপজেলা আওযামী লীগের সভাপতি নুরুল বশর ও সাবেক সাংসদ আবদুর রহমান বদির কথিত পুত্র দাবিকারী মোহাম্মদ ইসহাক।

কক্সবাজার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মুহম্মদ শাহীন ইমরান বলেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য বদ্ধ পরিকর নির্বাচন কমিশন। প্রার্থীদের আচরণবিধি মানার জন্য নিন্দেশনা প্রদান করা হযেেছ। কেউ আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওযা হবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে