সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

যৌতুক মামলায় স্বামীর সাজা, হুমকির প্রতিবাদে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন 

বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি
  ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১১
ছবি-যায়যায়দিন

বরিশালের বাকেরগঞ্জে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী করা মামলা নারী ও শিশু আদালতের রায়ে হাতুড়ে ডাক্তার স্বামী মনির হাওলাদার ওরফে ফয়সাল হাওলাদার (৪৮) নামের চারবছরে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে সোমবার ( ৮ এপ্রিল) কেরানীগঞ্জ র‌্যাব গ্রেফতার করে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

গ্রেফতারকৃত মনির হাওলাদার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের নেহাজ উদ্দিন হাওলাদারের পুত্র।

জানা যায়, বিগত ১৯৯৮ সালে উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের তবিরকাঠি গ্রামের সেকান্দার শরীফের কন্যা মালা বেগমকে বিয়ে করে মনির । দীর্ঘদিন ঘর সংসার করা কালে তাদের কোলে আসে ৪ টি কন্যা সন্তান। বিয়ের সময় মালার পরিবার নগদ টাকা এবং স্বর্ণলাংকার সহ প্রায় তিন লক্ষ টাকার মালামাল দেয়। কিন্তু ৪ টি কন্য সন্তান হওয়ার পর থেকে স্ত্রী মালা বেগমকে স্বামী মনির হাওলাদার ধারাবাহিক মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে। এছাড়াও করেছেন আরো তিনটে বিয়ে। তাঁতেও মনির হয়নি ক্ষ্যান্ত প্রতিনিয়তই করতো স্ত্রীর মালা বেগমের উপর নির্যাতন। স্বামীর এই নির্যাতন সইতে না পেরে ২০১৬ সালে মালা বেগম নিজেই বাদী হয়ে স্বামীকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন, বরিশাল আদালতে যার মামলা নং-৩৪৩/১৬।

উক্ত মামলায় আদালতে স্ত্রী সন্তান দের ভরণপোষণ ও তার বসত বাড়ি লিখে দিবে বলে মুচলেকা দিয়ে মুক্তি পান মনির হাওলাদার।

আদালত থেকে জামিনে বেড়িয়ে স্ত্রী সন্তানদের ভরণ পোষণ দেয়ার কথা থাকলেও , মনির দিচ্ছি দিব বলে স্ত্রী সন্তানদের সাথে তালবাহানা শুরু করে আদালতের আদেশ অমান্য করে।

গত (১৬ মার্চ) মনির হাওলাদার তার নিজ বাড়িতে গিয়ে স্ত্রী মালা বেগম ও সন্তানদের মারধর করে বাড়ি থেকে নামিয়ে দিতে চাইলে স্ত্রী মালা বেগম ৯৯৯ কল দিয়ে পুলিশের সহায়তা চাইলে মনির হাওলাদার মালা বেগমের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় এর‌ই মধ্যে ঘটনা স্থলে বাকেরগঞ্জ থানার এএসআই আল‌ আমিন সহ সঙ্গীয় ফোর্স গিয়ে বিষয়টি শুনে ও মনিরে বিরুদ্ধে মামলা কাগজ পত্র দেখে বলে এতে কিছু হবে আপনি আদালতের শরণাপন্ন হন বলে উভয় পক্ষকে শান্ত থাকতে বলে চলে আসে।

এদিকে ( ৬ এপ্রিল) আদালতে আদেশ অমান্য করার দায় মনির হাওলাদারকে চার বছরের সাজা দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। উক্ত মামলায় মনির গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারের পর থেকে মনিরের পরিবার ও ভাড়াটে লোক জনকে দিয়ে হুমকি দেয়াচ্ছে বাদী মালা বেগমকে।

হুমকির প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার ৯ এপ্রিল বেলা আড়াইটায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন বাদী মালা বেগম তিনি সংবাদ সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে বলেন আদালতে আমি বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করি তাতে আমার স্বামী মনির হাওলাদারের চার বছরের সাজা হয়েছে, সে গতকাল রাতে গ্রেফতার হয়েছেন। তার পর থেকে আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দেয় হচ্ছে। ভয়ে আমি ও আমার সন্তানদের নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় পালিয়ে বেড়াচ্ছি।

আমি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমার সন্তানদের নিয়ে শান্তিতে বসবাস ও ন্যায়বিচার পেতে ঊর্ধ্বতন সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে