শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

সেবাই আমাদের উৎসব, সেবাই আমাদের আনন্দ: আইজিপি

গাজীপুর প্রতিনিধি
  ১৪ জুন ২০২৪, ২০:০৯
আপডেট  : ১৪ জুন ২০২৪, ২০:১০
ছবি-যায়যায়দিন

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেছেন, বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিটি সদস্য ঈদ উপলক্ষে এবং সব সময় দেশবাসী বা নাগরিকদের সেবা দেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। আমরা ঈদে ছুটিতে না গিয়ে দেশের সেবা, দেশের মানুষের সেবা, মানুষের নিরাপত্তা দিয়ে আমরা গর্ববোধ করি, আনন্দ উপভোগ করি। সেবাই আমাদের উৎসব, সেবাই আমাদের আনন্দ। এই ব্রত নিয়ে আমরা ঈদে দায়িত্ব পালন করে থাকি এবং ঈদেও দিন মানুষের নিরাপত্তা দিয়ে থাকি।

আসন্ন ঈদ উল আযহা উপলক্ষে শুক্রবার (১৪ জুন) বিকেলে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পরিদর্শনে গিয়ে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় সাংবাদিকদেও ব্রিফিংকালে ওইসব কথা বলেন।

এসময় তার সঙ্গে এডিশনাল আইজি মো. আতিকুল ইসলাম, এডিশনাল আইজি (হাইওয়ে) মো. শাহাবুদ্দিন, গাজীপুর মহানগর পুলিশের কশিমনার মো. মাহবুব আলম, উপ পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মো. আলমগীর হোসেন, গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ, উপকমিশনার মো. ইব্রাহিম খান, উপ-কমিশনার নন্দিতা মালাকার প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আইজিপি আরো বলেন, ঈদে যারা গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছেন এবং বাড়ির মালিক যারা আছেন, আমরা তাদের রিকুয়েস্ট করবো যাওয়ার সময় যাদের সিসিটিভি ক্যামেরা সচল আছে সেগুলো সচল আছে কি-না তা বা সেভাবে থাকার কথা সেভাবে আছে কি-না তা দেখে নিবেন। বাড়িতে বিশ্বস্ত প্রতিনিধি রেখে যাবেন। এরপরও যদি কোন সমস্যা দেখা দেয় তাহলে নিকটস্থ থানায় যোগাযোগ করবেন। আর তাও যদি না পারেন টোল ফ্রি ’ট্রিপল নাইন নম্বরে কল করে আমাদের সহায়তা নিন। আমরা দেশবাসীর সেবায় সর্বদা প্রস্তুত আছি।

তিনি আরো বলেন, ঈদে কোন ব্যবসায়ী যদি বড় অংকের টাকা পয়সা বহন করতে চান তাহলে আমাদের জানালে আমাদের টিম আপনাদের নিরাপদে পৌঁছে দেবে। আমরা পশুর হাটে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সার্বক্ষণিকভাবে প্রস্তুত আছি। পশু যে গন্তব্যে যাওয়ার কথা পথে যদি কেউ থামিয়ে চাঁদা দাবি করে কিংবা গন্তব্যের আগে জোর করে নামাতে চান তাহলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় এ ধরনের কাজের জন্য আইনানুগ ব্যবস্থা নিয়েছি। এ ধরণের কোন খবর থাকলে আমাদের জানাবেন, আমরা আপনাদের সেবা দেয়ার জন্য প্রস্তুত আছি।

আইজিপি মামুন বলেন, ঈদ উপলক্ষে দেশের মানুষ, সম্মানিত নাগরিকবৃন্দ যাতে যথাসময়ে নির্বিঘ্নে যার যার গন্তব্যে গমন করতে পারেন এজন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা আমাদের সদস্যরা যাত্রীদের নিরাপত্তা ও নির্বিঘ্ন ট্রাফিক ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য সকলে কাজ করে যাচ্ছে। ঈদ উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষ যাতে স্বস্তিতে নিজ নিজ গন্তব্যে পৌঁছাতে পারেন সেজন্য হাইওয়ে পুলিশ মেট্রোপলিটন পুলিশ, জেলা পুলিশ, নৌপুলিশ, টুরিস্ট পুলিশ, রেলওয়ে পুলিশ, র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব) আর্মড পুলিশ ব্যাটেলিয়ান সবাই একযোগে আমরা কাজ করছি।

পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের প্রতি সড়ক মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন যানবাহন বন্ধ রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন আইজিপি। তিনি যাত্রীদের ঈদে যানবাহনে অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে পরিবহনে ভ্রমণ না করার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, একটু তাড়াহুরা করার জন্য অনেকে ট্রাকে উঠেন, অন্য যানবাহনে অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে রওনা হন। এতে দেখা যায় রাস্তায় অনেকে দুর্ঘটনায় পতিত হয়। আমরা চাই ঈদে সবাই নিরাপদে যার যার গন্তবে যাক এবং ঈদের পরে আবার নিরাপদে ফিরে আসুক। তিনি চালকদের বেপরোয়া গতিতে যানবাহন চালাতে এবং বিনা কারণে ওভারটেকিং করা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন। যারা আইন অমান্য করে গাড়ি চালানোর চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ রা হবে। আমরা সড়ক-মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে সিসিটিভি ক্যামেরাসহ বিভিন্ন আধুনিক প্রযুক্তি স্থাপন করে যাত্রীদের গমনাগমন মনিটরিং করছি। কিছু কিছু হাইওয়েতে ড্রোনে মাইক লাগিয়ে যানবাহনের চালকদের ইনস্ট্রাশন দেয়া হচ্ছে গাড়ি কোন পথে চলে যাবে। এছাড়াও গাড়ি হঠাৎ কওে বিকল হয়ে যায়। ওইসব গাড়ি দ্রুত মেরামতের জন্য আশেপাশে যারা মেকানিক আছে তাদের মোবাইল নম্বরও সংগ্রহ করা হয়েছে, যাতে গাড়ি দ্রুত মেরামত করে যাত্রীদের গন্তব্যে পাঠাতে পারি।

তিনি আরো বলেন, ঈদের ছুটিতে অনেকে পরিবার পরিজন নিয়ে ভ্রমন করে থাকেন। এজন্য পর্যটকের নিরাপত্তার জন্য টুরিষ্ট পুলিশ মোতায়েন থাকবে। আর টুরিষ্ট পুলিশের চাহিদা অনুযায়ি জেলা পুলিশ ও মেট্রাপলিটন পুলিশ প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবে।

এরআগে চান্দনা-চৌরাস্তা এলাকায় পৌঁছে চালকদের মাঝে যানজট নিরসনে আইজিপি বিভিন্ন নির্দেশনা সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করেন।

যাযাদি/ এসএম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে