logo
শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৩ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

সংবাদ সংক্ষেপ
বিল গেটস
বিল গেটসের মন্তব্য

কোভিড-১৯ অন্যান্য রোগের

বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বাধা

যাযাদি ডেস্ক

কোভিড-১৯ মহামারি বৈশ্বিক স্বাস্থ্যসেবা সরবরাহ শৃঙ্খলে বাধা সৃষ্টি করতে শুরু করেছে বলে সতর্ক করেছেন বিল গেটস। তার মতে, এইডসসহ অন্য সব রোগের বিরুদ্ধে লড়াই কমিয়ে

দিয়েছে এ মহামারি।

শনিবার আন্তর্জাতিক এইডস সম্মেলনের বক্তব্যে বিল গেটস বলেন, জাতিসংঘ ও বৈশ্বিক ফান্ডের অনুমান অনুযায়ী কেবল সাব-সাহারান আফ্রিকায় হাজার হাজার লোকের চিকিৎসায় বাধা তৈরি

করছে এই মহামারি।

গবেষকরা আক্রান্তদের চিহ্নিত করতে সহায়তার পাশাপাশি উন্নত ডায়াগনস্টিক সরঞ্জাম এবং টিকার অগ্রগতির কারণে আশাবাদী মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, 'আমরা কোভিড-১৯কে পরাস্ত করব এবং এইচআইভি-এইডসের

বাধাও পেরিয়ে যাব।'

এই সমাজসেবক আরও সতর্ক করে বলেন, যদি ওষুধ ও টিকা সর্বোচ্চ দরদাতার কাছে পৌঁছায়, তাহলে প্রাণঘাতী এই মহামারি আরও দীর্ঘস্থায়ী হবে। যেসব দেশ ও মানুষের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন, তাদের কাছে ওষুধ ও টিকা পৌঁছে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন গেটস। তিনি বলেছেন, 'বাজারনির্ভর বিষয়গুলো নয়, সমতার ভিত্তিতে বণ্টনের কঠিন সিদ্ধান্তগুলো নিতে হবে আমাদের বিশ্ব নেতাদের।' সংবাদসূত্র : বিবিসি

করোনার বিস্তার রোধে

ইরানে বিয়ে বন্ধ

যাযাদি ডেস্ক

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে বিয়ে ও লোক সমাগম হয়, এমন সব সামাজিক অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করছে ইরান।

শনিবার টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন বন্ধের আহ্বান জানান দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। তার পরপরই এক পুলিশ কর্মকর্তা রাজধানী তেহরানে বিয়ে এবং অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার মতো সব ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেন। গত বছর ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর এ মহামারির বিস্তার রোধে কিছুদিন লকডাউনে ছিল ইরান।

কিন্তু অর্থনীতি বাঁচাতে গত এপ্রিলের মাঝামাঝি থেকে দেশটির সরকার ধীরে ধীরে লকডাউন শিথিলের সিদ্ধান্ত নেয়। এতে অর্থনীতির চাকা কিছুটা সচল হলেও ভাইরাসের বিস্তার উদ্বেগজনক হারে বাড়তে শুরু করে।

শনিবার ইরানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, দেশটিতে কোভিড-১৯ মহামারিতে এখন পর্যন্ত ১২ হাজার ৬৩৫ জনের মৃতু্য হয়েছে। মোট আক্রান্ত দুই লাখ ৫৫ হাজার ১১৭ জন। সংবাদসূত্র : বিবিসি

বন্যা-ভূমিধসে নেপালে নিহত ৪০ জন

যাযাদি ডেস্ক

নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে কমপক্ষে ৪০ জন প্রাণ হারিয়েছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে দেশটিতে কয়েক হাজার বাসিন্দা বাস্তুচু্যত হয়েছে।

রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ২০০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমের জেলা মিয়াগদিতে ২০ জনের মৃতু্যর পাশাপাশি ১৩ জনের বেশি নিখোঁজ রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। শুক্রবার সেখানে বেশ কয়েকটি বাড়ি ধসে পড়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, হেলিকপ্টারে করে দুর্গত এলাকার অর্ধশতাধিক লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। মিয়াগদির প্রতিবেশী কাসকা জেলায় আরও সাত জন নিহত হয়েছে বলে পর্যটন শহর পোখরা থেকে জানিয়েছেন আরেক সরকারি কর্মকর্তা।

ভারত সীমান্ত সংলগ্ন নেপালের দক্ষিণাঞ্চলীয় সমভূমিতে কোশি নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বইছে। এই কোশি নদীর কারণে প্রায় প্রতিবছরই ভারতের বিহারে বন্যা হয়।

জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃষ্টির মৌসুমে পর্বতময় দেশ নেপালে নিয়মিতই ভূমিধস ও হঠাৎ বন্যার ঘটনা ঘটে থাকে। সংবাদসূত্র : রয়টার্স

বাঘশুমারি :গিনেস

বুকে ভারত

যাযাদি ডেস্ক

ক্যামেরায় বিশ্বের সর্ববৃহৎ বন্যপ্রাণী জরিপ করায় গিনেস বুকে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে ভারতের ২০১৮ সালের বাঘশুমারি। চতুর্থ সর্বভারতীয় বাঘ গণনা শেষে দেশে দুই হাজার ৯৬৭টি বাঘের উপস্থিতি পাওয়া গেছে, যা বিশ্বের মোট বাঘের ৭৫ শতাংশ। গত বছর বিশ্ব বাঘ দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ওই শুমারির ফল ঘোষণা করেছিলেন। গিনেস বুকে ভারতের এই স্বীকৃতি মেলার খবরে কেন্দ্রীয় পরিবেশমন্ত্রী প্রকাশ জাবাদেকার টুইটারে লিখেছেন, 'ক্যামেরায় সবচেয়ে বড় বন্যপ্রাণী জরিপ করে গিনেস বুকে বিশ্ব রেকর্ড গড়লো সর্বভারতীয় বাঘ গণনা। এটা অসাধারণ মুহূর্ত এবং আত্মনির্ভর ভারতের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।' তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে গত চার বছরে ভারতে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা বাস্তব হয়েছে। গিনেস ওয়েবসাইট জানিয়েছে, ক্যামেরা দিয়ে ভারতের এই বন্যপ্রাণী জরিপ সবদিক থেকে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বিস্তৃত। ১৪১টি অঞ্চলের ২৬ হাজার ৮৩৮টি জায়গায় ক্যামেরা ট্র্যাপ স্থাপন করা হয়েছিল এবং এক লাখ ২১ হাজার ৩৩৭ বর্গকিলোমিটার জুড়ে জরিপ চালানো হয়েছে। সংবাদসূত্র : বিবিসি
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে