logo
বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

হাসপাতাল থেকে নিজ বাসভবনে নওয়াজ

সাবেক প্রধানমন্ত্রীর জন্য বাসায় আইসিইউ স্থাপন, জামিনে মুক্তি পেয়েছেন মেয়ে মরিয়মও

হাসপাতাল থেকে নিজ বাসভবনে নওয়াজ
নওয়াজ শরিফ ও মরিয়ম নওয়াজ
হাসপাতালে থেকে ছাড়া পেয়ে লাহোরে নিজ বাসভবনে উঠেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। দুই সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পর বুধবার জাতি উমরা রাইন্দকে এলাকায় অবস্থিত নিজ বাসভবনে ওঠেন তিনি। একই দিনে নওয়াজ শরিফের মেয়ে দেশটির বহুল আলোচিত চৌধুরী সুগার মিল দুর্নীতি মামলায় সাত বছরের দন্ডপ্রাপ্ত কারাবন্দি মরিয়ম নওয়াজও জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। সংবাদসূত্র : বিবিসি, ডন

গত বছর ২২ নভেম্বর সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের রক্তের পস্নাটিলেট মারাত্মকভাবে কমে গিয়ে দুই হাজারে দাঁড়ায়। এরপর লাহোরের সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ৬৯ বছর বয়সি এই রাজনীতিককে। একই হাসপাতালে চিকিৎসা হচ্ছিল তার মেয়ে মরিয়মেরও। তিনিও নওয়াজ শরিফের সঙ্গে বাড়িতে উঠেছেন। এর আগে চিকিৎসার জন্য গত সপ্তাহে নওয়াজকে আট সপ্তাহের জামিন দেয় ইসলামাবাদ হাইকোর্ট।

পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) মুখপাত্র মরিয়ম আওরঙ্গজেব এক বিবৃতিতে বলেন, 'সাবেক প্রধানমন্ত্রীর চিকিৎসার জন্য তার বাসভবনে আইসিইউ স্থাপন করা হয়েছে। তিনি বলেন, 'মেডিকেল ঝুঁকির কারণে চিকিৎসকরা নওয়াজের বাসায় বিশেষ মেডিকেল ইউনিট বসিয়েছেন। তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক আদনান খানের তত্ত্বাবধানে বাসভবনে ওই আইসিইউ স্থাপন করা হয়।

আওরঙ্গজেব বলেন, নওয়াজ শরিফের আশঙ্কাজনক স্বাস্থ্যের কারণে চিকিৎসকরা আপাতত তার সঙ্গে সাধারণ মানুষের সাক্ষাতে কড়াকড়ি আরোপ করেছেন। তার স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি বিবেচনা করে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়ার জন্য মরিয়মকে নির্দেশনা দিয়েছেন চিকিৎসকরাও। পিএমএল-এনের ওই মুখপাত্র বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে আইসিইউ ভেন্টিলেটর এবং কার্ডিয়াক সুবিধাও রয়েছে। রক্তে পস্নাটিলেটের পরিমাণ কমে যাওয়ার কারণে নওয়াজ ইনফেকশনের (সংক্রমণ) চূড়ান্ত ঝুঁকিতে রয়েছেন।

তবে নওয়াজ শরিফের তিনবার চিকিৎসা করা মেডিকেল বোর্ড তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। বোর্ডের প্রধান মাহমুদ আয়াজ বলেন, 'আমরা তার শারীরিক পরীক্ষা ও হৃদরোগের চিকিৎসার জন্য আরও আধুনিক সরঞ্জাম চেয়েছি। এই সুবিধা পাকিস্তানে নেই। রোগীকে অবশ্যই চিকিৎসার জন্য বিদেশ নিয়ে যেতে হবে।' পাকিস্তানের চিকিৎসকরা তাদের সেরা চিকিৎসা করেছেন বলেও দাবি করেন আয়াজ। তিনি বলেন, এখনো নওয়াজ শরিফের রক্তের পস্নাটিলেট স্থিতিশীল বা স্বাভাবিক নয়। তাকে শিগগিরই বিদেশে নিতে হবে।

এর আগে, মঙ্গলবার পাকিস্তানের তিনবারের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে মেডিকেল সিটি হাসপাতালে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কিন্তু মেয়ে মরিয়ম নওয়াজের জামিন আটকে যাওয়ায় তিনি হাসপাতাল ছাড়তে অস্বীকৃতি জানান। বুধবার মরিয়ম লাহোর হাইকোর্ট থেকে জামিনে মুক্তির চূড়ান্ত আদেশ পাওয়ার পর নওয়াজ নিজ বাসভবনে যান।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে