logo
বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০  

সাক্ষাৎকার

সবার সচেতন থাকা জরুরী

সময়ের আলোচিত কণ্ঠশিল্পী জাকিয়া সুলতানা কর্ণিয়া। বছরের বেশিরভাগ সময়ই ব্যস্ত থাকেন কনসার্টে। দেশের একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে চলেন গান নিয়ে। কিন্তু বিশ্বব্যাপী করোনার প্রাদুর্ভাবে এখন থেমে গেছে সব কিছু। ঘরবন্দি জীবনে গানে গানে সময় কাটছে এ শিল্পীর। কথা হলো তার সঙ্গে...

সবার সচেতন থাকা জরুরী

ঘরবন্দি... সর্বশেষ প্রোগ্রাম করেছিলাম ৭ মার্চ রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে। এরপর থেকেই আমি ঘরবন্দি আছি। খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছি না। ইতালি, চায়না, ইউকে, ইউএসের অবস্থা দেখে মাঝে টেনশন কাজ করলেও এখন ততটা নেই। নিউজ দেখলে আতঙ্ক বেড়ে যাওয়ায় এখন এসব নিয়ে ঘাটাঘাটি করি না। আতঙ্কের কারণে মানসিকভাবে চাপ বেশি হলে তাতে ক্ষতি হয়। আলস্নাহর উপর ভরসা করে এখন সতর্ক থাকছি। সময় কাটে... নিয়মিত গানের চর্চা করছি। পরিস্থিতি তো এক সময় স্বাভাবিক হবে, তখন গান নিয়ে কী করা যায় তার পরিকল্পনা করছি। পড়াশোনাও করা হয়। এছাড়া ইংলিশ মুভি দেখি ও ইংলিশ গান শুনি। মাঝে মধ্যে রান্নাও করা হয়। ফেসবুকে... ফেসবুকে ভক্তরা অনেকে মন্তব্য করেছেন করোনা নিয়ে আমি কিছু বলছি না কেন। নিজেও ভেবে দেখলাম তাই তো! মানুষ মিডিয়ার লোকদের একটি কথার গুরুত্ব দেন। অনেক তারকাই জনগণকে সচেতন করছেন ফেসবুকের মাধ্যমে। ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগের এখন এই একটিই মাধ্যম। এজন্য গত ৩ এপ্রিল ফেসবুকে খুব সাধারণ একটি ভিডিও শেয়ার করেছি। করোনার এই পরিস্থিতিতে সচেতনতামূলক কিছু বলার চেষ্টা করেছি। অবসরে গানে... কিছু দিন আগে প্র্যাকটিস করতে গিয়ে একটি হিন্দি গানের কিছু অংশ ফেসবুকে আপলোড করেছি। শ্রোতারা যে ধরনের গান এর আগে আমার থেকে শোনে নাই। একেবারেই ভিন্ন মেজাজে তানপুরার টানে গানটি করেছি। এতে করে খানিক সময়ের জন্য মানুষের মানসিকতার একটু পরিবর্তন ঘটেছে। গান শুধু আনন্দের সময়ের জন্য নয়। বিপদের সময়ের জন্যও গান। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময়েও কিন্তু গান হয়েছে। সেইসব গান ওই সময়ে অনেক অবদান রেখেছে। থেমে নেই... করোনার এই সময়ে আমরা কিন্তু থেমে নেই। ঘরে বসে শিল্পীরা অনেকেই গান করছেন। কিছু দিন আগে বাসা থেকে 'আমরা করব জয়' গানটি রেকর্ডিং করে ফেসবুকে পাঠিয়ে দিয়েছি। এখন শিল্পীরা প্রোগ্রাম করতে পারছেন না কিন্তু গান নিয়ে ঠিকই কাজ করছেন। অনেকেই ফেসবুক লাইভে আসছেন। জনগণকে করোনা নিয়ে সচেতন করছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে