logo
বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

শিক্ষকদের সমাবেশ ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে সরকার

যাযাদি রিপোর্ট

সারা দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে আয়োজিত মহাসমাবেশ ঠেকাতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় কঠোর অবস্থান নিয়েছে। আজ স্কুলে সরকারি ছুটি হলেও শিক্ষকদের নিজ নিজ কর্মস্থল ত্যাগ না করতে নির্দেশনা জারি করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই)। এদিকে সরকারের এই নির্দেশনা অমান্য করে সারাদেশ থেকে হাজার হাজার শিক্ষক কর্মস্থল ত্যাগ করে মঙ্গলবার ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছেন। আজ সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহাসমাবেশ করার প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা। দাবি আদায় না হলে আগামী ১৭ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বর্জনের হুমকি দিয়েছেন তারা।

প্রধান শিক্ষকদের ১০ম ও সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতনের দাবিতে গত ১৪ অক্টোবর থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করেন সারা দেশের প্রায় ৬৬ হাজার স্কুলের পৌনে চার লাখ শিক্ষক। পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আজ সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহাসমাবেশ করার কথা রয়েছে। তাদের দাবি বাস্তবায়নে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষকদের ১৪টি সংগঠন মিলে সম্প্রতি গঠন করা হয়েছে 'বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্যপরিষদ'। এই পরিষদের ব্যানারে আন্দোলন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

তবে শিক্ষকদের চলমান আন্দোলন ঠেকাতে কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। বিদেশ সফর শেষে গত সোমবার প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ছুটে যান মন্ত্রণালয়ে। তিনি সচিব  মো. আকরাম-আল-হোসেনকে নিয়ে মন্ত্রণালয়ের সব অতিরিক্ত ম ৫

সচিবদের নিয়ে সভা করেন। দীর্ঘ সময় সভা শেষে  সচিব ডিপিইর মহাপরিচালককে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন। এরপরই ডিপিই মহাপরিচালক এফ এম মনজুর কাদির সকল জেলা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দিয়ে একটি চিঠি জারি  করেন। তাতে বলা হয়, আগামী ২৩ অক্টোবর পবিত্র আখেরী চাহার সোম্বার উপলক্ষে বিদ্যালয় ছুটির দিনে কতিপয় শিক্ষক সংগঠন ঢাকায় শহীদ মিনারে বিভিন্ন দাবি নিয়ে আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারেন মর্মে জানা যায়। এমতাবস্থায়, ছুটির দিন হলেও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষকের কর্মস্থল ত্যাগের অনুমতি না দিতে নির্দেশনা প্রদান করা হলো।  

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় ঐক্যপরিষদের সদস্য সচিব মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ বলেন, মহাসমাবেশের সকল প্রস্তুতি প্রায় শেষ। দাবি মানা না হলে মহাসমাবেশ থেকে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। প্রয়োজনে সমাপনী পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণাও দেওয়া হতে পারে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন বলেন, যারা সমাবেশে যাবে, তাদের ব্যাপারে কঠোরতম ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বেতন বৈষম্য নিরসনের বিষয়টি নিয়ে অর্থসচিবের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং একটি গ্রহণযোগ্য সমাধানের পথে অনেকদূর এগিয়েছি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে