logo
মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

নদী রক্ষায় সরকার অত্যন্ত আন্তরিক নৌপ্রতিমন্ত্রী

যাযাদি রিপোর্ট

স্বাধীনতাবিরোধীরা যাতে কোনোভাবেই নদীরক্ষা আন্দোলনে অনুপ্রবেশ করতে না পারে, সে জন্য সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

শনিবার সকালে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের সামনে বিশ্ব নদী দিবসকে সামনে রেখে দেশের ৭০টি নদী, পরিবেশ ও সামাজিক সংগঠনের অংশগ্রহণে 'নদীর জন্য পদযাত্রা' শীর্ষক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

জাতীয় নদীরক্ষা কমিশন ও নদী দিবস উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ এই পদযাত্রার আয়োজন করে।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকার নদীরক্ষায় অত্যন্ত আন্তরিক। কিন্তু এক্ষেত্রে আপনাদের মনে রাখতে হবে, আমরা যে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছি, এই চ্যালেঞ্জটা যাতে মুখ থুবড়ে না পড়ে। এই চ্যালেঞ্জের মধ্যে রাজনীতি ঢুকে যেতে পারে। যখন স্বাধীনতাবিরোধী প্রতিক্রিয়াশীলরা রাজনীতির মাঠ থেকে বিতাড়িত হয়ে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার পথে, তখন এই প্রতিক্রিয়াশীলরা কিন্তু বসে থাকবেনা। তারা বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের মধ্যে ঢুকে যেতে পারে।

'পরবর্তীতে তারা সোচ্চার হয়ে আমাদের আন্দোলনগুলোকে নষ্ট করে দিতে পারে। কাজেই স্বাধীনতাবিরোধী প্রতিক্রিয়াশীলরা এই নদীরক্ষা আন্দোলনে যাতে কোনোভাবেই অনুপ্রবেশ করতে না পারে, সেদিকে আমাদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।'

বিশিষ্ট লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, নদীরক্ষায় জনগণের সঙ্গে সরকারের সম্মিলিত সংগ্রাম তাৎপর্যপূর্ণ। সরকার ও জনগণের উদ্যোগ ছাড়া নদী দখলমুক্ত ও রক্ষা করা অসম্ভব।

জাতীয় নদীরক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার বলেন, দেশের সব নদী আন্দোলনকারীদের সমন্বয়ে দেশের নদী রক্ষা করা সম্ভব। আপনাদের দাবিগুলো নিয়ে সরকার কাজ করছে। আমরা আশা করছি, যেসব সমস্য আছে, আগামী তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে সেগুলো শেষ করা সম্ভব।

ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, নদী দিবস উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব ও রিভারাইন পিপলের মহাসচিব শেখ রোকন, বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলনের সদস্য সচিব মিহির বিশ্বাস প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন রিভারাইন পিপলের পরিচালক মোহাম্মদ এজাজ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে