logo
বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

ঢাবি 'খ' ইউনিটের ফল ভর্তিযোগ্য ২৩.৭২%

যাযাদি রিপোর্ট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের 'খ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে, যাতে ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হয়েছেন ২৩ দশমিক ৭২ শতাংশ পরীক্ষার্থী।

ভর্তির যোগ্য বিবেচিত ১০ হাজার ১৮৮ জনের মধ্যে শেষ পর্যন্ত দুই হাজার ৩৭৮ জন শিক্ষার্থী 'খ' ইউনিটের অন্তর্ভুক্ত বিভাগগুলোতে লেখাপড়া করার সুযোগ পাবেন।

উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান রোববার দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। 'খ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়ক ও কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক আবু মো. দেলোয়ার হোসেন এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন।

গত দুই বছর প্রশ্নফাঁস ও ভর্তি জালিয়াতির অভিযোগ ওঠায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবার পরীক্ষা পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনে।

নতুন নিয়মে ৭৫ নম্বরের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নের সঙ্গে ৪৫ নম্বরের প্রশ্নের লিখিত উত্তর দিতে হয়েছে পরীক্ষার্থীদের। ৯০ মিনিটের পরীক্ষায় নৈর্ব্যক্তিকের জন্য ৫০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৪০ মিনিট সময় পেয়েছেন তারা।

২০০ নম্বরের মধ্যে ১৭৯ দশমিক ২৫ শতাংশ নম্বর পেয়ে এবার 'খ' ইউনিটের মেধাতালিকায় প্রথম হয়েছেন বেগম বদরুন্নেছা মহিলা কলেজ থেকে পাস করা আফরাজ আরসিয়ান। ১৭৭ দশমিক ৭৫ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন ময়মনসিংহের সৈয়দ শহীদ নজরুল ইসলাম কলেজ থেকে পাস করা নুরুন্নাহার ঊর্মি এবং জামালপুরের তারাকান্দা কলেজের বিশ্বময় শর্মা প্রমীত হয়েছেন তৃতীয়।

'খ' ইউনিটে এবার গত বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ পাস করেছেন জানিয়ে উপাচার্য আখতারুজ্জামান বলেন, "শিক্ষার্থীদের উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের লেখাপড়াকে গুরুত্ব দিয়ে প্রশ্নপত্র সাজানোর ফলেই পাসের হার গত বছরের তুলনায় অনেক ভালো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।''

এ বছর মোট ৪৫ হাজার ১৮ জন 'খ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য আবেদন করলেও শেষ পর্যন্ত গত ২১ সেপ্টেম্বর পরীক্ষা দেন ৪২ হাজার ৯৫৪ জন।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সাল এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইট (ধফসরংংরড়হ.বরং.ফঁ.ধপ.নফ) থেকে ফল জানতে পারবেন।

তাছাড়া যে কোনো মোবাইল ফোন থেকে উট<>কঐঅ<>জড়ষষ টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফলাফল জানা যাবে।

যোগ্য বিবেচিতদের মধ্যে মেধাক্রম অনুসারে ১ থেকে ৬০০০ জন শিক্ষার্থী ১৬ অক্টোবর বিকেল ৫টা থেকে ৩১ অক্টোবর বিকেল ৪টার মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে বিষয়ের পছন্দক্রম পূরণ করতে পারবেন।

কোটায় আবেদনকারীদের ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবরের মধ্যে কলা অনুষদের ডিন অফিস থেকে ফর্ম সংগ্রহ করে পূরণ করে তা সেখানেই জমা দিতে হবে। ফলাফল নিরীক্ষণের জন্য নির্ধারিত ফি প্রদান সাপেক্ষে এই সময়ের মধ্যে ডিন বরাবর আবেদন করা যাবে।

এছাড়া অন্যান্য তথ্যের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট দেখতে বলা হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে