logo
শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

ফ্রান্স প্রবাসীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান

যাযাদি রিপোর্ট

ফ্রান্সে বসবাসরত প্রবাসী নাগরিকদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) ও ফ্রান্স বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা।

তারা বলেছেন, বাংলাদেশে প্রবাসীদের বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। প্রবাসীরা এই সুযোগ নিতে পারেন। গত সোমবার প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) ও ফ্রান্সে বাংলাদেশ দূতাবাসের যৌথ উদ্যোগে প্যারিসের স্থানীয় একটি হোটেলে প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী ও পেশাজীবীদের জন্য এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

সেমিনারে বিগত এক দশকে আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের উন্নয়ন, বিনিয়োগের সম্ভাব্য ক্ষেত্র, বিনিয়োগকারীদের জন্য প্রদত্ত বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা তুলে ধরা হয়। রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেজার এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বেজার এক্সিকিউটিভ মেম্বার হারুনুর রশিদসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সেমিনারে বেজার কার্যক্রম, অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে দেয়া বিশেষ সুবিধা ও প্রণোদনাসমূহ এবং ওয়ান স্টপ সার্ভিস সম্পর্কে আলোচনা করেন বেজার জেনারেল ম্যানেজার সোহেলুর রহমান চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বেজার এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী বেজার কার্যক্রম এবং বিগত বছরসমূহে গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়নমুখী পদক্ষেপের ফলে অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বিনিয়োগের যে অপার সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে, সে বিষয়ে আলোচনা করেন।

এ সময় ফ্রান্সে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে বিনিয়োগের আহ্বান জানান তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশে রূপান্তরিত করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও গতিশীল নেতৃত্বে ব্যবসা ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে যে অভূতপূর্ব সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে, সেটা উলেস্নখ করেন।

তিনি বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ব্যবসা ও বিনিয়োগের যেকোনো ধরনের তথ্য বা সহযোগিতা প্রদানের প্রথম ওয়ান স্টপ সার্ভিস হলো বাংলাদেশ দূতাবাস। বাংলাদেশের সঙ্গে ব্যবসা ও বিনিয়োগে আগ্রহী ফ্রান্সে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সার্বিক সহযোগিতা ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হবে। এ ছাড়া সরকারি মাধ্যমে রেমিট্যান্স প্রদানের ক্ষেত্রে ২ শতাংশ প্রণোদনা দেয়া হবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে