শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১

একদিন আমরা বিশ্বকাপ খেলবো, জয়ীও হবো: প্রধানমন্ত্রী

  ০৯ জুন ২০২৩, ২০:০৬
একদিন আমরা বিশ্বকাপ খেলবো, জয়ীও হবো: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ সবদিক থেকে এগিয়ে যাবে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আত্মমর্যাদা নিয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে যেতে হবে। খেলাধুলা, অর্থনৈতিক উন্নতি, সবদিক থেকে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।এখান থেকে আমরা আন্তর্জাতিক পর্যায়েও এক সময় বিশ্বকাপ খেলতে পারব। হয়তো একদিন বিশ্বকাপও জিততে পারব।সেভাবে মন-মানসিকতা ঠিক রেখে সবাইকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আমি আহ্বান জানাই।

শুক্রবার (৯ জুন) বিকালে বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে ‘শেখ হাসিনা আন্তঃব্যাংক ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২৩’ এর ফাইনাল খেলা ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আত্মমর্যাদা নিয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে যেতে হবে। এই আত্মবিশ্বাস নিশ্চয়ই আমাদের ছেলেমেয়েদের মধ্যেও কাজ করবে। আত্মবিশ্বাস থাকলে যেকোনো অসাধ্য সাধন করা যায়, সেটা সবাইকে মনে রাখতে হবে।

এ ধরনের খেলাধুলার আয়োজন বাংলাদেশব্যাপী একটা অভ‚তপূর্ব সাড়া জাগিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, খেলাধুলা, শরীরচর্চা, সাংস্কৃতিক চর্চা এগুলোর মধ্য থেকে মানুষের মেধা বিকাশ হয়। ঠিক সেভাবে আমাদের দেশের মানুষ উজ্জীবিত হয়, আত্মবিশ্বাস বাড়ে, দেশের প্রতি ভালোবাসা বাড়ে, দায়িত্ববোধ বাড়ে ও কর্তব্যবোধ বাড়ে। এ টুর্নামেন্ট আয়োজন করার জন্য আমি বাংলাদেশ ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশনকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

শেখ হাসিনা বলেন, সারা দেশে ফুটবল হচ্ছে সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। কাজেই এই খেলাকে আমরা গুরুত্ব দিই। জাতির পিতা আজ আমাদের মাঝে নেই। তিনি আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। আমরা স্বাধীন জাতি হিসেবে মর্যাদা পেয়েছি। আত্মপরিচয়ের সুযোগ পেয়েছি।

আমরা একটি রাষ্ট্র পেয়েছি। আমরা সরকারের আসার পর থেকে সমগ্র বাংলাদেশের মিনি স্টেডিয়াম করে দিচ্ছি। যাতে আমাদের ছেলেমেয়েরা খেলাধুলায় সম্পৃক্ত থাকে। শুধু খেলাধুলা নয়, লেখাপড়া, শরীরচর্চা, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যেন সম্পৃক্ত থাকতে পারে, আমরা সে কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমার বাবা ফুটবল খেলতেন, দাদা ফুটবল খেলোয়াড় ছিলেন। এমনকি আমাদের নাতিপুতিরাও ফুটবল খেলে। সেদিক থেকে ফুটবলের সঙ্গে আমাদের অন্য রকম সম্পর্ক রয়েছে। তার থেকে বড় কথা, বাংলাদেশে সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ফুটবল।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকসের (বিএবি) চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম মজুমদার, সেনাবাহিনী প্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান (সালমান এফ রহমান), ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলসহ অন্যরা।

যাযাদি/ এসএম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে